২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

যুক্তরাষ্ট্রের ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েনের বিরুদ্ধে মস্কোর হুঁশিয়ারি


রাশিয়া বুধবার সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, দক্ষিণ কোরিয়ায় ওয়াশিংটনের মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েনের ফলে এ অঞ্চলে অস্ত্র প্রতিযোগিতা দেখা দেয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। অন্যদিকে, উত্তর কোরিয়ার সাম্প্রতিক পরমাণু ও রকেট পরীক্ষার পর দেশটির বিরুদ্ধে আরও কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপের পক্ষে মার্কিন সিনেটে সদস্যরা ভোট দিয়েছেন সর্ব সম্মতভাবে। খবর ওএফপি ও বিবিসি অনলাইনের।

উত্তর কোরীয় ও মার্কিন প্রতিরক্ষা কর্মকর্তারা গত সপ্তাহে বলেছেন, উত্তর কোরিয়ার সাম্প্রতিক পরমাণু ও ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার জবাবে তারা টার্মিনাল হাই এ্যালটিউট এরিয়া ডিফেন্স সিস্টেম (হাড) ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েনের ব্যাপারে গত সপ্তাহে আলোচনা শুরু করেছেন। রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, এ অঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্রের ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা গড়ে তোলা উত্তর পূর্ব এশিয়ায় অস্ত্র প্রতিযোগিতাকে উস্কে দিতে পারে এবং কোরীয় উপদ্বীপের ব্যাপারে পরমাণু সমস্যার সমাধানের পথকে জটিল করে তুলতে পারে। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের এ পদক্ষেপে আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতার ওপর মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্রের ধ্বংসাত্মক প্রভাব বৃদ্ধি পেতে পারে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আবারও বলেছে যে, পিয়ংইয়ংয়ের পরমাণু ও ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা কেবল তীব্র নিন্দাকেই ডেকে আনবে। কিন্তু, ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা সম্প্রসারণে তাদের অজুহাত হিসেবে ব্যবহারের জন্য ওয়াশিংটনের সমালোচনা করেছে রুশ মন্ত্রণালয়। যুক্তরাষ্ট্র প্রত্যয়ের সঙ্গে বলেছে, উত্তর কোরিয়ার উন্নত ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচী প্রতিরোধে এ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। চীনও বলেছে, এ নাজুক অঞ্চলে স্থিতিশীলতাকে নস্যাত করে দেবে যুক্তরাষ্ট্রে ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন। পিয়ংইয়ং ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন।

মেক্সিকোয় ট্রাকের ভেতর শ্বাসরুদ্ধ হয়ে ১২৪ কুমিরের মৃত্যু

মেক্সিকোয় ট্রাকে ঠাসাঠাসি করে অনেকগুলো কুমিরকে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে নিয়ে যাওয়ার সময় শ্বাসরুদ্ধ হয়ে ১২০টির বেশি কুমির মারা গেছে। বুধবার কর্তৃপক্ষ একথা জানিয়েছে। খবর এএফপির।

পরিবেশ প্রসিকিউশন কার্যালয় থেকে বলা হয়েছে, বন্যপ্রাণী সরবরাহকারী ক্যারিবিয়ান উপকূলীয় রাজ্য কুইনতানা রু ভিত্তিক কোম্পানি কোকোড্রিলোস এক্সোটিকোসকে এই ঘটনার জন্য সর্বনিম্ন ১৯৩ ডলার থেকে ১ লাখ ৯৩ হাজার মার্কিন ডলার পর্যন্ত জরিমানা করা হতে পারে।

আলেপ্পোর লড়াইয়ে ৫০ হাজার মানুষ বাস্তুচ্যুত

সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ আলেপ্পোয় তীব্র লড়াই ছড়িয়ে পড়ায় প্রায় ৫০ হাজার মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছে। সেখানকার মানবিক পরিস্থিতি দ্রুত অবনতি হচ্ছে এবং আলেপ্পো শহরে পানি সরবরাহও বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। ইন্টারন্যাশনাল কমিটি অব দ্য রেডক্রস (আইসিআরসি) সতর্ক করে এ খবর জানিয়েছে। খবর বিবিসির।

সিরীয় সরকার রাশিয়ার বিমান হামলার ছত্রছায়ায় বিদ্রোহীদের দখল করে নেয়া সিরিয়ার বড় এই শহরটির প্রধান এলাকাগুলো পুনর্দখলের চেষ্টা করছে।