১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

শিলিগুড়িতে বন্য হাতির তাণ্ডব


শিলিগুড়িতে বন্য হাতির তাণ্ডব

অনলাইন ডেস্ক ॥ প্রায় পাগল হয়ে যাওয়া একটি হাতির তাণ্ডবের ছবি তুলতে কিংবা ভিডিও করতে যাওয়া একদল মানুষকে ছত্রভঙ্গ করতে শেষ পর্যন্ত লাঠিচার্জ করল পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ। শুধু লাঠি র্জ করেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়নি। পরে অবশ্য ঘন্টা খানেক সময় ধরে জলকামানও ব্যবহার করতে হয়েছে তাদেরকে। গত বুধবার কলকাতা থেকে আনুমানিক সাড়ে ৬০০ কিলোমিটার দূরে শিলিগুড়ির সেবক রোডে এই ঘটনা ঘটেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সাংবাদিকরা জানান, এদিন ভোরে শিলিগুড়ির প্রাণকেন্দ্র সেবক রোডে খাদ্যের অভাবে একটি হাতি ঢুকে পড়ে এবং সেখানে ব্যাপক তাণ্ডব চালাচ্ছিল। প্রায় সাড়ে সাত ঘন্টা ধরে শিলিগুড়ি শহরের স্কুল, বাজার, রাস্তা, পার্কিংজোন; এমন কি সরাকরি হাসপাতালের ভেতরে ঢুকে বহু জিনিষপত্র ভাঙচুর করে উন্মত্ত হাতিটি। হাতির এই তাণ্ডবের ছবি এবং খবর মুহুর্তে ছড়িয়ে পড়ে ফেসবুকে। পাগলা হাতির তাণ্ডবের ছবি এবং ভিডিও তুলতে সেবক রোডে কয়েক হাজার মানুষ ভিড় জমাতে শুরু করেন। তাদের অধিকাংশই হাতে থাকা মোবাইল ফোন থেকে ছবি ও ভিডিও করতে দেখা যায়।

এতো মানুষের উপস্থিতি দেখে হাতিটি আরো বিগরে যায়। পুলিশ প্রথমে হাতে মাইক হাতে নিয়ে উপস্থিত মানুষকে যে যার কাজে চলে যাওয়ার অনুরোধ করে। কিন্তু কেউ পুলিশের এই অনুরোধ শোনেনি। বরং সময়ের সঙ্গে সঙ্গে মানুষের উপস্থিতিও বাড়তে থাকে। ফলে শিলিগুড়ির ব্যস্ততম সেবক রোড কার্যত অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে। ফলে বাধ্য হয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে লাঠিচার্জ শুরু করে। কিন্তু তাতেও কাজ হয়নি। শেষ পর্যন্ত জলকামান দিয়েই তাড়াতে হয় ওই উৎসুক সেলফি পাগল দর্শকদের। পরে দুপুরে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বন দপ্তরের কর্মীরা বহু চেষ্টার পর, ঘুমের ওষুধ দেওয়া গুলি চালিয়ে নিস্তেজ করে ক্ষিপ্ত হাতিটিকে। পরে ওই হাতিকে ক্রেন দিয়ে ট্রাকে তুলে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে সুকনার জঙ্গলেই ছেড়ে দেওয়া হয়।

স্থানীয়দের অনুমান, শিলিগুড়ির সুকনার জঙ্গল থেকে ওই হাতিটি জনবসতিপূর্ণ সেবক এলাকায় ঢুকে পড়ে। শহরে হাতি ঢুকে পড়ার খবর পেয়েও সংশ্লিষ্টরা দেরিতে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন বলে অভিযোগ করেছেন অনেকেই।

এ ব্যাপারে উত্তরবঙ্গের মূখ্য বন কর্মকর্তা এমএস মুরারি জানান, যে কোনও কারণেই হোক হাতিটি জনবসতিতে ঢুকে পড়েছিল। কিন্তু সেই হাতির তাণ্ডবের দৃশ্য ধারণ করতে যেভাবে এক দল মানুষ ভিড় করেছিলেন তাতে হাতির আরো ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: