মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৫ আশ্বিন ১৪২৪, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

মুক্তমনা লেখক হত্যায় উদ্বিগ্ন ইইউ পার্লামেন্ট প্রতিনিধি দল

প্রকাশিত : ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৬

কূটনৈতিক রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশে মুক্তমনা লেখক, ব্লগার ও প্রকাশক হত্যায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন পার্লামেন্টের প্রতিনিধি দল। লেখক-প্রকাশকদের হত্যায় জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা ও মত প্রকাশের স্বাধীনতার বিষয়টি নিশ্চিত করার তাগিদ দিয়েছে তারা। এছাড়া ইউরোপের সঙ্গে বাংলাদেশের ব্যবসা-বাণিজ্য বাড়াতে বিজনেস কাউন্সিল গঠনের বিষয়ে একমত হয়েছে প্রতিনিধি দল।

রাজনীতি, মানবাধিকার, পোশাক শিল্পের কর্মপরিবেশ, নিরাপত্তা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে চার সদস্যের ইইউ পার্লামেন্টের প্রতিনিধি দল তিনদিনের সফরে ঢাকায় এসেছে। বুধবার সকাল থেকেই প্রতিনিধি দলের সদস্যরা বিভিন্ন পক্ষের সঙ্গে বৈঠক শুরু করেন। ইউরোপীয় ইউনিয়নের পার্লামেন্ট সদস্য ও দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক প্রতিনিধিদলের চেয়ারপার্সন জিন ল্যাম্বার্টের নেতৃত্বে এই প্রতিনিধি দলের সদস্যরা ঢাকা সফর করছেন।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধি দল প্রথমেই জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমানের সঙ্গে বৈঠক করেন। এ সময় জিন ল্যাম্বার্টের নেতৃত্বে চার সদস্যের ইউরোপীয় পার্লামেন্ট প্রতিনিধি দলে যুক্তরাজ্যের লেবার পার্টির সদস্য রিচার্ড হেউইট, ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্রেট পার্টির সদস্য ইভান স্টিফেন্স ও কনজারভেটিভ পার্টির সদস্য সাজ্জাদ করিম উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র জানায়, বৈঠকে বাংলাদেশে মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়েও আলোচনা করে ইউরোপীয় পার্লামেন্ট প্রতিনিধি দল। এ সময় প্রতিনিধি দলের পক্ষ থেকে বাংলাদেশে লেখক, ব্লগার ও প্রকাশকদের হত্যার বিষয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। লেখক-ব্লগার হত্যাকা-ের প্রেক্ষিতে সরকার থেকে কি ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে, সেটাও জানতে চান তারা। একই সঙ্গে মত প্রকাশের স্বাধীনতা নিশ্চিতে তাগিদ দেয় প্রতিনিধি দল।

ইউরোপীয় পার্লামেন্ট প্রতিনিধি দল বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের সঙ্গেও বৈঠক করেন। বৈঠকে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও বাংলাদেশের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সমন্বয়ে বিজনেস কাউন্সিল গঠনের বিষয়ে একমত হন তারা।

ইউরোপীয় পার্লামেন্ট প্রতিনিধি দল সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠক করেন। আজ বৃহস্পতিবার বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার সঙ্গে প্রতিনিধি দলের বৈঠক করা কথা রয়েছে। এছাড়া সুশীল সমাজ ও পোশাক শিল্প শ্রমিক সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করবে ইউরোপীয় পার্লামেন্টের প্রতিনিধি দল। আজ সকালে প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক করবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। শুক্রবার ঢাকা ছাড়ার আগে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হবে ইউরোপীয় প্রতিনিধি দল।

কূটনৈতিক সূত্র জানায়, চলতি বছরের শুরুতে ইতোমধ্যেই বাংলাদেশের রাজনৈতিক ও নিরাপত্তা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে ঢাকা সফর করেছে দুটি মার্কিন প্রতিনিধি দল। যুক্তরাষ্ট্রের পরে এবার ঢাকায় এসেছে ইউরোপীয় পার্লামেন্টের প্রতিনিধি দল।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, বাংলাদেশে জাতীয় নির্বাচনের দুই বছর পেরিয়ে যাবার পর এখানকার রাজনৈতিক পরিস্থিতি পুনর্মূল্যায়ন করতে চায় বিদেশীরা। এছাড়া পোশাক শিল্পের কর্মপরিবেশ পর্যবেক্ষণ করতে চায় তারা। আর সম্প্রতি এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে নিরাপত্তা পরিস্থিতি। বাংলাদেশে এক জাপানী ও এক ইতালির নাগরিক খুন হওয়ার পর নিরাপত্তা পরিস্থিতি এখন অন্যতম ইস্যু। এসব বিষয় পর্যবেক্ষণে এসেছে প্রতিনিধি দলটি।

প্রকাশিত : ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৬

১১/০২/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: