১৯ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটারদের ধর্মঘটে যাওয়ার শঙ্কা


ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটারদের ধর্মঘটে যাওয়ার শঙ্কা

অনলাইন ডেস্ক ॥ টি-টোয়েন্টি বিশ্ব আসরের আগেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটারদের ধর্মঘটে যাওয়ার শঙ্কা জেগেছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড (ডাব্লিউআইসিবি) সামনের মাসের টুর্নামেন্টে যে টাকা দিতে চাইছে তাতে আপত্তি খেলোয়াড়দের। আগের বিশ্ব আসরের তুলনায় এই টাকা অনেক কম। আর ১৫ সদস্যের দলের পক্ষ থেকে অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি একটি চিঠি দিয়েছেন বোর্ডকে। তাতে খেলোয়াড়দের পারিশ্রমিক বাড়িয়ে শিগগিরই সমস্যা সমাধানের আবেদন জানানো হয়েছে।

স্যামি তার চিঠিতে জানিয়েছেন এবার যা পারিশ্রমিক তা দেয়া হচ্ছে তা আগের আসরের চেয়ে ৮০ শতাংশ কম। এটা অপ্রতুল। তাছাড়া এই দলের ১৪ সদস্যই ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্লেয়ার্স অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য না। তাই কোনো সংস্থাকে তারা তাদের হয়ে বোর্ডের সাথে আলোচনায় বসার অধিকার দেয়নি বলেও জানানো হয়।

স্যামি টি-টোয়েন্টি বিশ্ব আসর থেকে খেলোয়াড়দের সরে যাওয়ার কোনো হুমকি দেননি। কিন্তু এটা বোঝা যায় যে ক্যারিবিয়ান খেলোয়াড়রা এই সম্ভাবনার কথা মাথায় রেখেছে। স্যামি তার চিঠিতে পরিস্কার করে দিয়েছেন যে বোর্ডের দেয়া আর্থিক প্রস্তাব দল নিচ্ছে না। চিঠিতে লিখেছেন, "আমরা ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রতিনিধিত্ব করতে চাই। কিন্তু এই আর্থিক প্রস্তাব আমরা নিতে পারছি না। এটা বোঝা যায় যে আইসিসির কাছ থেকে ডাব্লিউআইসিবি ৮০ লাখ ডলার পাবে। ঐতিহ্যগতভাবে ২৫ শতাংশ খেলোয়াড়দের দেয়া হয়। হিসেব করলে সেটা ২০ লাখ ডলারের মতো বেশি হয়। প্রত্যেক খেলোয়াড় তাতে ১৩৩,০০০ ডলার পায়। কিন্তু বাজে ব্যাপার হলো বিশ্ব টি-টোয়েন্টিতে অংশ নেয়ার জন্য বোর্ড সব খেলোয়াড়ের জন্য মোট ৪১৪,০০০ ডলারের প্রস্তাব দিয়েছে। আগে আমরা যেভাবে টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েছি সেভাবেই এবার নিতে চাই।"

ডাব্লিউআইসিবির প্রধান নির্বাহী মাইকেল মাইরহেড খেলোয়াড়দের এই আবেদন উড়িয়ে দিয়েছেন। স্যামি আইসিসির কাছ থেকে যে টাকা পাওয়ার কথা বলেছেন তা পুরোপুরি ভুল হিসেবে উল্লেখ করেছেন তিনি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের খেলোয়াড়দের সংগঠনের সাথে আলাপ করেই পারিশ্রমিক নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। মাইরহেড জানিয়েছেন, আইসিসি আগের নিয়মে টাকা দিচ্ছে না। ৮০ লাখ ডলার পাওয়ার কথা সত্য না। তাই আগের নিয়মে খেলোয়াড়দের টাকা দেয়া সম্ভব না। বোর্ড যে কোনো সমঝোতা করবে না তাও সাফ জানিয়ে দিয়েছেন এই কর্মকর্তা।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: