২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

কিশোরগঞ্জে চরপড়া গ্রামের শিশুরা তিন কিলোমিটার হেঁটে পড়তে যায়


কিশোরগঞ্জে চরপড়া গ্রামের শিশুরা তিন কিলোমিটার হেঁটে পড়তে যায়

নিজস্ব সংবাদদাতা, কিশোরগঞ্জ ॥ কিশোরগঞ্জ সদরের পল্লীতে অবহেলিত একটি গ্রামের নাম চরপাড়া। এ গ্রামে চার হাজারের অধিক মানুষ বসবাস করলেও সেখানে নেই কোনো প্রাথমিক বিদ্যালয়। এ জন্য অনেকটা বাধ্য হয়েই গ্রামের কোমলমতি শিশুরা পায়ে হেঁটে তিন কিলোমিটার দূরের বিদ্যালয়ে গিয়ে পড়াশুনা করতে হয়। চরপাড়া গ্রামের শিক্ষার হার আশপাশের গ্রামের তুলনায় খুবই কম। আর তাই সরকার দুই বছর আগে এ গ্রামের ৩১ শতক খাসজমিতে একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপনের সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু ওই খাসজমিটি এক অবৈধদখলদার জবরদখলে রাখায় সেখানে বিদ্যালয় স্থাপন করা যাচ্ছে না।

বিদ্যালয়ের নামে দুই শতক ভূমি দানকারী স্থানীয় শিক্ষক আব্দুর রউফ ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, স্থান সংকটের কারণে তিনি নিজে দুই শতক ভূমি বিদ্যালয়ের নামে দিয়েছিলেন। আর সরকার ৩১ শতক খাসভূমি বিদ্যালয়ের নামে বন্দোবস্ত দিয়েছে। একজন ভূমিদস্যুর কারণে অবহেলিত চরপাড়া গ্রামে বিদ্যালয় স্থাপন করা যাচ্ছে না। তিনি দ্রুত ভূমিদস্যু সামছুদ্দিনকে উচ্ছেদ করে বিদ্যালয়ের নামে দেয়া খাসজমিতে বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করতে প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি

এ ব্যাপারে এডিসি (রাজস্ব) কাজী আবেদ হোসেন জানান, বিষয়টি সমাধানে দ্রুত কার্যকরী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। অপরদিকে অভিযুক্ত দখলদার শামছুদ্দিনের কাছে জানতে চাইলে তিনি এর কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: