২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

আইটিসি সংযোগ কাটা পড়েছে ॥ ইন্টারনেটে গতি কমায় দুর্ভোগ


স্টাফ রিপোর্টার ॥ ইন্টারন্যাশনাল টেরিসট্রিয়াল কেবল (আইটিসি) সংযোগ বাংলাদেশ ভারত সীমান্ত বেনাপোল ও হরিদাশপুর এলাকায় কাটা পড়েছে। এ কারণে মঙ্গলবার সারাদিন ইন্টারনেটের গতি কমে গেছে। দেশে ইন্টারনেট ব্যবহারের শতকরা ৬০ ভাগ ব্যান্ডউইথ সরবরাহ দিয়ে থাকে আইটিসি। বাকি ৪০ ভাগ ইন্টারনেট সরবরাহ দেয়া হয় সাবমেরিন কেবলের মাধ্যমে।

আইটিসি ব্যাকআপ হিসেবে ব্যবহার হয়ে আসছে। দ্বিতীয় সাবমেরিন কেবলের সঙ্গে যুক্ত না হওয়া পর্যন্ত আইটিসিই ব্যাকআপ হিসেবে কাজ করবে। কিন্তু এই আইটিসি মাঝে মধ্যেই কাটা পড়ছে। কেন কি কারণে কাটা পড়ছে সে বিষয়ে আইটিসির মালিকরাও বলতে পারছেন না। ইন্টারনেটে গতি কমে গেলে স্বাভাবিক কাজকর্মে চরম ব্যাঘাত ঘটে। মঙ্গলবার গ্রাহক পর্যায় থেকে শুরু করে ইন্টারনেটের বড় বড় ইউজাররা হয়রানির শিকার হয়েছেন। ইন্টারনেট এখন অতি প্রয়োজনীয় বলে মনে করেন তথ্যপ্রযুক্তিবিদগণ। তাই নীরবচ্ছিন্ন ইন্টারনেট সরবরাহ নিশ্চিত করা জরুরী। সূত্র জানিয়েছে, ভারত থেকে ৫টি অপারেটর ইন্টারন্যাশনাল টেরিসট্রিয়াল কেবলের (আইটিসি) মাধ্যমে দেশে ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথ আনছেন। এই ব্যান্ডউইথ সরকারী-বেসরকারী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান কিনে নিয়ে গ্রাহক পর্যায়ে সরবরাহ দিচ্ছেন। আবার আইটিসির মালিকরা সরাসরি ইন্টারনেট সরবরাহ দিয়ে আসছে। মঙ্গলবার বাংলাদেশ ভারত সীমান্ত এলাকা বেনাপোলে আইটিসির কেবল কাটা পড়েছে। এ কারণে অনেকেই ইন্টারনেট ব্যবহার করতে গিয়ে বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছেন। ইন্টারনেটে ধীরগতি দেখা দিয়েছে। সকাল থেকে এ সমস্যায় পড়েছেন দেশের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা। দেশে সাবমেরিন কেবল ও আইটিসির মাধ্যমে ব্যান্ডউইথ পাওয়া যায়। বাংলাদেশে আইটিসি সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো সমস্যা দূর করার জন্য কাজ করছেন। ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার এ্যাসোসিয়েশনের এক কর্মকর্তা বলেন, ভারত থেকে বেনাপোল দিয়ে আইটিসি লিংকগুলো বাংলাদেশে ঢুকেছে। অনেক সময় এ লিংকগুলো কাটা পড়ে বা ভারত অংশ থেকেও সমস্যা তৈরি হয়। একটি লিংক কাটা পড়লেই ব্যান্ডউইথের গতি কমে যায়। সকাল থেকে আইটিসি ডাউন পাওয়া যাচ্ছে। বিকেলেও একই রকম গতি ছিল। পুরোপুরি ব্যান্ডইউথ পেতে হলে আজ বুধবার পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। অভিযোগ রয়েছে আইটিসিতে এ ধরনের সমস্যা প্রায়ই ঘটছে। শুধু বেনাপোল পয়েন্ট দিয়ে লিংক আসায় এ সমস্যা দেখা দিচ্ছে। আরও কয়েকটি পয়েন্ট দিয়ে কেবল দেশে আনা হলে সমস্যা অনেকাংশে কমে যাবে। একটা কেবল কাটা পড়লেও অন্য কেবলগুলো ভাল থাকবে। তখন ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথের কোন সমস্যা হবে না। আইটিসি লিংক কাটা পড়ায় ৫০-৬০ শতাংশ ব্যান্ডউইথ সরবরাহ বন্ধ হয়ে গেছে। কারণ ৬০ শতাংশ ব্যান্ডউইথ আসে আইটিসির মাধ্যমে। আইটিসির একাধিক ট্রান্সমিশন পথ এখন ডাউন হওয়ায় শুধু সাবমেরিন কেবল দিয়ে ব্যান্ডউইথ পাওয়া যাচ্ছে। এতে ইন্টারনেট ব্রাউজিং করতে সমস্যা হচ্ছে। সমস্যা সমাধানের চেষ্টা চলছে বলে জানানো হয়েছে। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এই সমস্যা সমাধান হতে পারে।