২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

হাসিনা-মোদি বৈঠকের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে কাজ করব ॥ হর্ষবর্ধন


কূটনৈতিক রিপোর্টার ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মধ্যে বৈঠকের সিদ্ধান্ত দ্রুত বাস্তবায়নের আশা প্রকাশ করেছেন ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে দুই দেশের বিরাজমান বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে পৃথকভাবে আলোচনা শুরু করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। এ ছাড়া বাংলাদেশের নাগরিকদের ব্রিটিশ ভিসা সহজীকরণের আশ্বাস দিয়েছেন ঢাকায় নিযুক্ত যুক্তরাজ্যের হাইকমিশনার এ্যালিসন ব্লেক। এদিকে ‘২০৩০ সালের মধ্যে টেকসই উন্নয়ন’- শীর্ষক সম্মেলনে যোগ দিতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গেছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

মঙ্গলবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গে ভারতে হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা ও যুক্তরাজ্যের হাইকমিশনার এ্যালিসন ব্লেক পৃথক বৈঠক করেন। বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন বলেন, বাংলাদেশ ও ভারতের দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতার বাড়ানোর বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। আমি ঢাকায় এসে প্রথম দিন ক্রেডেনশিয়াল দেয়ার আগেই কয়েক সাংবাদিকের মুখোমুখি হয়েছিলাম। সেটাই আবার উল্লেখ করতে চাই, গত বছর ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ঢাকায় এসেছিলেন। ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সফরের মধ্য দিয়ে একটি নতুন দিগন্তের সূচনা হয়েছে। আমরা সে অনুযায়ী কাজ করতে চাই।

দুই দেশের মধ্যে পানি বন্টন সমস্যার বিষয়ে কোন আলোচনা হয়েছে কি-না জানতে চাইলে হর্ষবর্ধন শ্রিংলা বলেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গে এটা আমার প্রথম সৌজন্যমূলক বৈঠক। নির্দিষ্টভাবে কোন একটি বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়নি। তবে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যেই পৃথক ভাবে বিভিন্ন পক্ষের সঙ্গে এসব ইস্যু নিয়ে আলোচনা করব। তিনি এ সময় সাংবাদিকদের বাংলায় বলেন ‘ধন্যবাদ’।

সূত্র জানায়, ভারতীয় হাইকমিশনার ঢাকায় আসার পরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গে এটাই ছিল প্রথম বৈঠক। বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক আরও জোরদারের আশা প্রকাশ করেছেন ভারতীয় হাইকমিশনার। পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে তাকে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন।

এদিকে বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাজ্যের হাইকমিশনার এ্যালিসন ব্লেইক সোমবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সৌজন্য বৈঠক করেন। নবনিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনারকে বাংলাদেশে স্বাগত জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেন, বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যের সম্পর্ক দীর্ঘদিনের এবং যুক্তরাজ্য বাংলাদেশের পরীক্ষিত একটি বন্ধুরাষ্ট্র। বৈঠককালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কোন্নয়নে যুক্তরাজ্যে বসবাসরত বাংলাদেশী ডায়াসপোরার অবদানের কথা বিশেষ করে উল্লেখ করেন। তিনি বাংলাদেশী নাগরিকদের জন্য ব্রিটিশ ভিসা সহজীকরণের বিষয়ে নবনিযুক্ত হাইকমিশনারকে অনুরোধ জানান।

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যের সঙ্গে একমত পোষণ করে হাইকমিশনার ব্লেইক বলেন যুক্তরাজ্যে বসবাসরত বাংলাদেশীগণ দুই দেশের সম্পর্কোন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছেন। তিনি বাংলাদেশীদের জন্য ভিসা প্রক্রিয়া সহজীকরণের লক্ষ্যে তার পক্ষ হতে সম্ভাব্য সকল ধরনের সহযোগিতার নিশ্চয়তা প্রদান করেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এ্যালিসন ব্লেইক বলেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গে বৈঠকে দুই দেশের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক জোরদারের বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। আমরা আশা প্রকাশ করছি, দুই দেশের সম্পর্ক আরও জোরদার হবে।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিউইর্য়ক গেছেন ॥ ২০৩০ সালের মধ্যে টেকসই উন্নয়ন এজেন্ডা বাস্তবায়ন শীর্ষক এক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের জন্য পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম মঙ্গলবার সকালে নিউইয়র্কের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করেন। বাংলাদেশ বর্তমানে উন্নয়নশীল দেশসমূহের সভাপতি। সে প্রেক্ষিতে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম ওই অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: