২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

হবিগঞ্জে সংঘর্ষ ॥ টেঁটাবিদ্ধসহ আহত ৩৫


নিজস্ব সংবাদদাতা, হবিগঞ্জ, ৯ ফেব্রুয়ারি ॥ মঙ্গলবার সকালে বানিয়াচঙের মক্রমপুর ইউনিয়নের রাধাপুর এবং চুনারুঘাটের গোলাগাঁওয়ে পৃথক সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত হয়েছে অন্তত ৩৫ জন। গুরুতর আহত ৯ জনকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল ও হবিগঞ্জ আধুনিক হাসপাতালসহ সংশ্লিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, বেলা ১১টার দিকে রাধাপুর গ্রামের বাসিন্দা ফারুক মিয়ার ছেলে নুরুল আলম জমির আইলে ঘাস কাটতে গেলে একই গ্রামের খুর্শেদ আলীর পক্ষাবলম্বনকারী লোকজন বাঁধা দেয়। এক পর্যায়ে নুরুলকে বেদম প্রহার করে ওরা। এ খবর পেয়ে নুরুলের পক্ষের লোকজন লাটিসোটা নিয়ে ঘটনাস্থলে হাজির হলে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। প্রায় এক ঘণ্টাব্যাপী এই সংর্ঘষ চলাকালে পেটে টেঁটাবিদ্ধ হন দুলাল। এ সময় আহত হয় কদ্দুছ ও রিপনসহ আরও অন্তত ৭ জন। অবস্থার অবনতি হওয়ায় দুলালকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। এদিকে একই দিন সকাল ১০টার দিকে পূর্ববিরোধের জের ধরে জেলার চুনারুঘাটের গোলগাঁও গ্রামে জনৈক লুকু উদ্দিন ও জাফর আলীর পক্ষাবলম্বনকারী লোকজনের মধ্যে ভয়াবহ রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে আহত হয় অন্তত ২৭ জন। এখানেও প্রায় দেড় ঘণ্টাব্যাপী এই সংঘর্ষ চলাকালে আমিনা, আলেয়া, জাফর আলী, কাছম ও আমিনুল গুরুতর আহত হন।

মোহনগঞ্জে আহত ২০

নিজস্ব সংবাদদাতা মোহনগঞ্জ নেত্রকোনা থেকে জানান, মোহনগঞ্জ উপজেলার ২নং বড়তলী-বানিয়াহারী ইউনিয়নের উত্তর-জগদীশপুর গ্রামে খাস জমিতে ধানের চারা রোপণ করাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ২০ জন আহত হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। উভয়পক্ষের সংঘর্ষে গুরুতর আহতদের মোহনগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে ও অধিক গুরুতর আহত ১ জনকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার বড়তলী-বানিয়াহারী ইউনিয়নের উত্তর-জগদীশপুর গ্রামে বিরোধপূর্ণ খাস জমিতে ধানের চারা রোপণ করাকে কেন্দ্র করে একই গ্রামের গোলাম মোস্তফা ও রুহুল আমিনের লোকজনের মধ্যে বাগবিত-ার এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বাঁধে। এতে উভয়পক্ষের অন্তত ২০ জন আহত হয়।