১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

দ্রাবিড়ের মুখে বাংলাদেশ বন্দনা


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ মিডলঅর্ডারের ‘দ্য ওয়াল’ হিসেবে সুপরিচিত হয়েছিলেন বিপর্যয়ের মুখে দুর্দান্ত ব্যাটিং করে। কিন্তু জাতীয় দলের জার্সি গায়ে বিশ্বকাপ জেতা হয়নি। এবার রাহুল দ্রাবিড় ভারত অনুর্ধ ১৯ দলের কোচ। শিষ্যরা দারুণ নৈপুণ্য দেখিয়ে ইতোমধ্যেই সেমিফাইনালে উঠেছে। দ্রাবিড়ের সুযোগ কোচ হিসেবে বিশ্বকাপ জিতে আক্ষেপ ঘুঁচানোর। সোমবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে দলের অনুশীলন শেষে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেট বিশ্বে উদ্ভাসিত সাফল্যের প্রশংসা করেন তিনি। অনেক তরুণ ক্রিকেটার উঠে আসছে সেটা বাংলাদেশের জন্য ইতিবাচক বলে মন্তব্য করেন তিনি।

গত বছরটা বাংলাদেশ দলের দারুণ কেটেছে। সাফল্যে মোড়ানো ছিল বাংলাদেশের ক্রিকেট। এ বিষয়ে দ্রাবিড় বলেন, ‘বাংলাদেশ সর্বশেষ দুই বছরে অসাধারণ খেলেছে এবং খেলছে। বিশেষ করে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে তারা উজ্জ্বল। সাকিব, মুশফিক এবং মাশরাফির মতো সিনিয়ররাই এই দলের প্রাণ। তারা তো আসলে আন্তর্জাতিক তারকাও।’ বাংলাদেশ দল গত বছর ঘরের মাটিতেই অধিকাংশ ম্যাচ খেলেছে। দ্রাবিড় মনে করেন আরও এগিয়ে যেতে চাইলে দেশের বাইরেও ভাল খেলতে হবে টাইগারদের। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বিশেষ করে দেশে। আমি মনে করি আরও এগিয়ে যেতে চাইলে দেশের বাইরে বাংলাদেশকে ভাল খেলতে হবে।’ গত বছর বাংলাদেশ সফরে প্রথমবারের মতো ২-১ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজ হেরেছে ভারত। আর এর পেছনে রূপকার ছিলেন তরুণ বাঁহাতি পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। তার বিষয়ে দ্রাবিড় বলেন, ‘মুস্তাফিজের বিষয়ে লোকে আমাকে ইতিবাচক অনেক কিছু বলেছে। সে দারুণ করেছে।’ এবার বাংলাদেশের মাটিতে যুবাদের চ্যাম্পিয়ন করে নিজের বিশ্বকাপ জেতার আক্ষেপটা ঘুচানোর সুযোগ দ্রাবিড়ের। এ বিষয়ে দ্রাবিড় বলেন, ‘দুটি জিনিসকে আমি এক করে দেখতে চাই না। এটা আসলে খেলোয়াড়দের দল।

প্রোটিয়াদের টিকে থাকার লড়াই

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইংল্যান্ডের মধ্যকার পাঁচ ম্যাচ সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডে আজ। ২-০তে এগিয়ে আছে সফরকারী ইংলিশরা। সিরিজে টিকে থাকতে হলে আজ তাই জিততেই হবে স্বাগতিক প্রোটিয়াদের। ওয়ানডের আগে ঘরের মাটিতে টেস্টে সিরিজ হেরে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থান খোয়ায় দক্ষিণ আফ্রিকা। তার আগে ভারত সফরে টি২০, ওয়ানডে জিতলেও সাদা পোশাকে ভরাডুবি হয় দলটির। সব মিলিয়ে আধুনিক ক্রিকেটের অন্যতম শক্তিধর প্রোটিয়াদের অবস্থা আসলেই ভাল নয়। টেস্টে তিন নম্বরে নেমে যাওয়া এবি ডি ভিলিয়ার্সরা ওয়ানডেতে আছে চার নম্বরে। বিপরীতে ষষ্ঠ স্থানে থাকলেও ওয়ানডেতে ইয়ন মরগানের নেতৃত্বে দারুণ খেলছে বদলে যাওয়া ইংল্যান্ড। অতিথিরা আজই সিরিজ নিশ্চিত করতে চাইবে। বিশ্বকাপের ব্যর্থতা ভুলে পঞ্চাশ ওভারের ম্যাচে দারুণ খেলছে ইয়ন মরগানের ইংল্যান্ড। ব্লুমফন্টেইনের প্রথম ম্যাচে দারুণ রোমাঞ্চের ইঙ্গিত ছিল। জয়ের জন্য ঠিক ৪শ’ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৩৩ ওভারেই ২৫০ রান তুলে নিয়েছিল স্বাগতিকরা! এরপর বৃষ্টি এলে ডাকওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে ৩৯ রানের জয় পায় ইংল্যান্ড। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে অবশ্য সহজ জয় পান সফরকারীরা। ইয়ন মরগানের দল প্রোটিয়াদের হারায় ৫ উইকেটে। পোর্ট এলিজাবেথে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ২৬২ রান করে টস জিতে ব্যাটিং নেয়া দক্ষিণ আফ্রিকা। জবাবে ইংল্যান্ডের হয়ে দুর্দান্ত ব্যাটিং করেন এ্যালেক্স হেলস। মাত্র ১ রানের জন্য সেঞ্চুরি পাননি এই ওপেনার। ১২৪ বলে ৮ চারের সাহায্যে ৯৯ রানে কাইল এ্যাবটের শিকারে পরিণত হন হেলস। জো রুট ৩৮ ও মরগান ২৯ এবং শেষদিকে ২৮ বলে ৪ চার ও ৩ ছক্কায় জস বাটলার অপরাজিত ৪৮ রান করলে ৪৬.২ ওভারে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ইংল্যান্ড। টিকে থাকার কাজটা তাই মোটেই সহজ হবে না ডি ভিলিয়ার্সদের। বিশেষ করে বোলিংয়ে ডেল স্টেইনের অনুপস্থিতি ভোগাচ্ছে প্রোটিয়াদের। ব্যাট হাতে সময় মতো জ্বলে উঠতে হবে হাশিম আমলা ও ফাফ ডুপ্লেসিসদের।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: