২৪ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

হকিতে হার দিয়ে শুরু বাংলাদেশের


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ হকিতে যাত্রাটা শুভ হয়নি বাংলাদেশের। এশিয়ার পরাশক্তি, স্বাগতিক ভারতের কাছে ৪-১ গোলের হার দিয়ে এসএ গেমস হকির শুরু বাংলাদেশের। ম্যাচের ১০ মিনিটে সোমান্নার ফিল্ড গেলে এগিয়ে যায় ভারত। ২৭ মিনিটে পেনাল্টি স্ট্রোক থেকে গোল দ্বিগুণ করেন গগনপ্রীত সিং। এর মিনিট তিনেক পর আবারও পেনাল্টি থেকে গোল করে আয়োজক দেশটি। ৪২ মিনিটে ব্যবধান কিছুটা কমাতে সক্ষম হয় বাংলাদেশ। মিলনের ফিল্ড গোলে স্কোর লাইন দাঁড়ায় ৩-১। ৬৯ মিনিটে গোলের সংখ্যা আরও বাড়িয়ে নেয় ভারত। সংঘবদ্ধ আক্রমণ থেকে দলের পক্ষে চতুর্থ গোলটি করেন উমর।

দিনের অপর ম্যাচে ৩-০ গোলে পরাজিত করে শ্রীলঙ্কাকে। জয়ী দলের পক্ষে গোল করেন আব্বাস, ওয়াইজ শাহ ও কাদির।

মেয়েদের বিভাগে ভারত ২৪-০ গোলে হারায় নেপালকে। ভারতের গোলদাতা রানী, কাউর, দীপিকা ও নেহা তিনটি করে। চারটি করে গোল করেন বারুন ও ইয়েন্দালা।

পিএসজির জয়রথ চলছেই

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ চলতি মৌসুমে দুর্দান্ত গতিতে ছুটছে প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি)। ফ্রেঞ্চ লীগ ওয়ানে রবিবার তারা ২-১ গোলে হারায় অলিম্পিক মার্শেইকে। আর এই জয়ে দারুণ অবদান রাখেন এ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডারের শেষ মুহূর্তের গোলেই লীগে টানা নবম জয় পায় দলটি।

রবিবার মার্শেইর ঘরের মাঠ স্ট্যাডে ভেলোদরোমেতে আতিথিয়েতা নিতে যায় পিএসজি। শুরুটাও করেন দারুণভাবে। ম্যাচের মাত্র দুই মিনিটেই দলকে এগিয়ে দেন জ¬াতান ইব্রাহিমোভিচ। তবে স্বাগতিকদের সুবিধে কাজে লাগিয়ে ২৫ মিনিটেই রেমি কাবেলার গোলে সমতায় ফিরে মার্শেই। এর ফলে সমতায় থেকেই বিরতিতে যায় দুই দল। দ্বিতীয়ার্ধেও নিজেদের সেরাটা দিতে থাকে টুর্নামেন্টের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। তার ফলাফলটাও পেয়ে যায় খুব দ্রুত। ম্যাচের ৭১ মিনিটেই দারুণ এক গোল করে দলকে আবারও এগিয়ে দেন এ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। প্রথম গোলের নায়ক ইব্রাহিমোভিচের সহায়তায় গোল করেন পিএসজির আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার ডি মারিয়া। এরপর আর কোন গোল না হওয়ায় শেষ পর্যন্ত ২-১ ব্যবধানের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে লরা ব্ল্যাঙ্কের শিষ্যরা।

গত কয়েক বছর ধরেই দুর্দান্ত খেলছে পিএসজি। এবার তার ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছে ফরাসী ক্লাবটি। রবিবার মার্শেইকে হারিয়ে সব ধরনের প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে টানা ১৫ জয়ের রেকর্ড গড়েছে ইব্রাহিমোভিচ-মারিয়ারা। আর পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থানটাকে আরও সুসংহত করল তারা। লীগে এই মৌসুমে এখন পর্যন্ত পরাজয় দেখেনি ক্লাবটি। ২৫ ম্যাচ খেলে তার ২২টিতেই জয়ের দেখা পেয়েছে। বাকি তিন ম্যাচে পেয়েছে ড্রয়ের স্বাদ। মোট পয়েন্ট ৬৯। দুইয়ে থাকা মোনাকোর সংগৃহীত পয়েন্ট ৪৫। অর্থাৎ দুই দলের পয়েন্ট ব্যবধান দাঁড়াল ২৪। চলতি মৌসুমে শিষ্যদের এমন পারফর্মেন্সে দারুণ সন্তুষ্ট পিএসজির অভিজ্ঞ কোচ লরা ব্ল্যাঙ্ক। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘মার্শেই আমাদের বিপক্ষে শারীরিকভাবে ঠিকই যুদ্ধ করেছে। যা আমরা আগে থেকেই প্রত্যাশা করেছিলাম। তবে আমরাও আমাদের সেরাটা উপহার দিয়েই জয় ছিনিয়ে এনেছি।’

শুধু ফ্রেঞ্চ লীগেই নয়, বরং ইউরোপ সেরার লড়াই উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগেও অসাধারণ পারফর্মেন্স করছে পিএসজি। চ্যাম্পিয়ন্স লীগে তাদের পরবর্তী ম্যাচ ইংলিশ জায়ান্ট চেলসির বিপক্ষে। তার আগে আরও দুটি ম্যাচ পাচ্ছে পিএসজি। যেখানে নিজেদের প্রস্তুত করতে পারবে। লরা ব্ল্যাঙ্কের মনোযোগও এখন সেদিকে। মার্শেইর বিপক্ষে জয়ের পরই শিষ্যদের সতর্ক করে দিলেন লরা ব্ল্যাঙ্ক।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: