১৫ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

তাইওয়ানে ভূমিকম্পের ৫০ ঘণ্টা পর দু’জনকে জীবিত উদ্ধার


তাইওয়ানের ভূমিকম্পে বিধ্বস্ত একটি এ্যাপার্টমেন্ট কমপ্লেক্সের ধ্বংসস্তূপ থেকে সোমবার দুই জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। তারা ৫০ ঘণ্টারও বেশি সময় ধ্বংসস্তূপের নিচে আটকা পড়ে ছিল। এদের একজন নারী ও একজন পুরুষ। খবর এএফপি ও বিবিসির।

দক্ষিণাঞ্চলের তাইনান নগরীর ওয়ে কুয়ান এ্যাপার্টমেন্ট কমপ্লেক্সের ধ্বংসস্তূপের মধ্য থেকে ক্রেন দিয়ে দিয়ে ওই ব্যক্তিকে জীবিত টেনে তোলা হয়। স্থানীয় গণমাধ্যমে ওই ব্যক্তির নাম লী সুং তিয়ান বলে উল্লেখ করা হয়েছে। তার বয়স ৪০ বছর। উদ্ধারকর্মীরা এর আগে বলেছিল, তারা ২০ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে মাটি খুঁড়ে তার কাছে পৌঁছানোর চেষ্টা করছিলেন। তবে তার পা ধ্বংসস্তূপের নিচে আটকে থাকায় তাকে উদ্ধার করা যাচ্ছিল না। এরপর তার পা কেটে তাকে উদ্ধার করা যায় কিনা তা পরীক্ষা করতে সেখানে চিকিৎসক পাঠানো হয়। তবে সেখানে অস্ত্রোপচার করার মতো যথেষ্ট জায়গা ছিল না। তখন সরকারী প্রকৌশলীরা স্থাপনার নিচ দিয়ে মাটি খুঁড়ে তাকে বের করে আনার পরামর্শ দেন। এরপর তাকে সেভাবে বের করে আনার চেষ্টা করা হয়। উদ্ধারকর্মীরা বলেছেন, তারা এক নারীর কান্না শুনে তাকে ধ্বংসস্তূপ থেকে বের করেন। উদ্ধারকর্মীরা ওই নারীর স্বামী ও সন্তানের লাশও উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি তার স্বামীর লাশের নিচে চাপা পড়ে ছিলেন। তার পরিবারের আরও পাঁচ সদস্য ধ্বংসস্তূপের নিচে আটকা পড়েছে। স্থানীয় এমপি ওয়াং তিং-ইয়ু জানান, সোমবার সকালে সাও উই-লিং নামে এক নারীকে উদ্ধার করা হয়েছে। তার জ্ঞান ছিল এবং তাকে হাসপাতলে পাঠানো হয়েছে। বহুতল ভবনটি ধ্বসের কারণ জানতে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তাইনান শহরের মেয়র উইলিয়াম লাই জানান, জীবিত উদ্ধার হওয়া ব্যক্তিরা তার কাছে ভবন নির্মাণে ত্রুটির কথা জানিয়েছেন। তবে তিনি বিস্তারিত কিছু জানাননি। এক মন্দিরে নিহতদের শেষকৃত্যে অংশ নিয়ে লাই বলেন, উদ্ধার অভিযান তৃতীয় পর্যায়ে রয়েছে। যাদের জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে তাদের চেয়ে আরও অনেক বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন। নিহতের সংখ্যা ১০০ ছাড়িয়ে যাবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।