১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ভারত-শ্রীলঙ্কা সেমির লড়াই আজ


মোঃ মামুন রশীদ ॥ আরেকটি ধাপ, তারপরই শিরোপার একেবারে কাছাকাছি হবে দুটি দল। ইতোমধ্যেই চলমান অনুর্ধ ১৯ বিশ্বকাপের দুটি সেমিফাইনালের লাইনআপ চূড়ান্ত হয়েছে। সোমবার চতুর্থ কোয়ার্টার ফ্ইানালে পাকিস্তান অনুর্ধ ১৯ দলকে ৫ উইকেটে হারিয়ে সর্বশেষ দল হিসেবে সেমিফাইনালে উঠেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ অনুর্ধ ১৯ দল। বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় সেমিতে তারা মুখোমুখি হবে স্বাগতিক বাংলাদেশ যুবাদের। এর আগেই আজ ফয়সালা হয়ে যাবে একটি দলের ফাইনালে ওঠার বিষয়টি। মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে হট ফেবারিট ভারত অনুর্ধ ১৯ দল মুখোমুখি হবে শ্রীলঙ্কা অনুর্ধ ১৯ দলের। সকাল ৯টায় ম্যাচটি শুরু হবে।

ভারত তিনবার যুব বিশ্বকাপের শিরোপা জিতেছে। সর্বশেষ ২০১২ সালেও তারা বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। তবে ২০১৪ সালে আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত আসরে তারা ওই শিরোপাটা হারিয়ে বসে। এবার ভারতীয় যুবাদের সুযোগ মুকুট পুনরুদ্ধার করার। এখন পর্যন্ত ভারত যুবারা যেমন নৈপুণ্য দেখিয়েছে কোন দলই তেমন প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়তে পারেনি। এবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আরেকবার জ্বলে ওঠার অপেক্ষা। দলের কোচ হিসেবে আছেন সাবেক ক্রিকেটার রাহুল দ্রাবিড়। তিনি অবশ্য শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বেশ সতর্কভাবেই নামতে চান। কারণ লঙ্কানদের স্পিন বিভাগ বেশ শক্তিশালী। তবে ভারতীয় দলের সবচেয়ে বড় শক্তি ব্যাটিং। এটাই তাদের এগিয়ে রাখবে। আর লঙ্কানরা ১৬ বছর পর আবারও যুব বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলতে উন্মুখ হয়ে আছে। যদিও গ্রুপ পর্বে পাকিস্তানের বিপক্ষে একটি ম্যাচ হেরে গিয়েছিল তারা। কিন্তু কোয়ার্টার ফাইনালে শক্তিশালী ইংল্যান্ডকে হারিয়ে সেমিতে উঠেছে। সে কারণে আরেকবার ফাইনাল খেলার স্বপ্নে বিভোর লঙ্কান যুবারা।

সবার আগে এবার সেমিফাইনালে পা রেখেছিল আয়োজক বাংলাদেশ। ক্রিকেটের যে কোন বিশ্বকাপে এটিই বাংলাদেশের সর্বোচ্চ সাফল্য। তাই নতুন ইতিহাস রচিত হয়ে গেছে। এবার মেহেদী হাসান মিরাজদের লক্ষ্য বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার। তবে এর আগে সেমিফাইনাল পেরোতে হবে। শেষ চারে বাংলাদেশ মনেপ্রাণেই চাইছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজকে। সেই প্রত্যাশা পূরণ করেছে ক্যারিবীয়রা। সোমবার ফতুল্লায় তারা ৫ উইকেটে হারিয়ে দেয় পাকিস্তানকে। ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে মাত্র ২২৭ রান করেছিল পাকরা। ক্যারিবীয় পেসাররা দুর্দান্ত বোলিং করে ৫৭ রানেই তুলে নিয়েছিল ৫ উইকেট। কিন্তু ষষ্ঠ উইকেটের ১৬৪ রানের জুটি তাদের বড় বিপর্যয় থেকে রক্ষা করে। উমাইর মাসুদ ১১৪ বলে ১৫ চার ও ২ ছক্কায় ১১৩ রান করেন। জবাবে ১০ ওভার বাকি থাকতেই ৫ উইকেটে ২২৯ রান করে ক্যারিবীয়রা সেমিতে পা রাখে। টেভিন ইমলাচ ৫৪ ও হেটমায়ার ৫২ রান করেন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: