২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৬ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

কাওরানবাজারে ছাত্র-আনসার হাতাহাতি ॥ বিক্ষোভ, অবরোধ


স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর কাওরান বাজারে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আনসার সদস্যদের হাতাহাতির ঘটনায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল করেছে শিক্ষার্থীরা। আনসার সদস্যদের মারধরে চার শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। ট্রাফিক পুলিশের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের দায়িত্বরত কনস্টেবল জানান, শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের কারণে সোমবার বেলা পৌনে ২টা থেকে আড়াইটা পর্যন্ত আধাঘণ্টা কাওরানবাজারের সার্ক মোড় থেকে চারদিকের রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এতে আশপাশের সড়কে ভয়াবহ যানজট সৃষ্টি হয়। পুলিশ এসে সুষ্ঠু তদন্তের আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা চলে যান। পরে যানচলাচল স্বাভাবিক হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বাংলা মোটরের দিক থেকে আসা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বহনকারী ফালগুন পরিবহনের একটি বাস সার্ক ফোয়ারা এলাকায় সিগনালের মধ্যেই সামনে এগোতে চাইলে দায়িত্বরত আনসার সদস্যরা বাসটিকে বাধা দেন। এ নিয়ে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে তাদের বাক-বিত-া হয়। শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেন, বাস আটক করে আনসার সদস্যরা কয়েক ছাত্রকে মারধর করে। এরপর বাসে থাকা শিক্ষার্থীরা তাৎক্ষণিকভাবে সড়ক আটকে বিক্ষোভ শুরু করে। এই পরিস্থিতিতে ফার্মগেট, শাহবাগ, পান্থপথ ও এফডিসিগামী সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে পুলিশ জিডি করার পরামর্শ দিয়ে বিষয়টি দেখার আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা সেখান থেকে সরে যান। আধাঘণ্টা পর যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে গুলশান হয়ে বারিধারাগামী ‘ফাল্গুন’ নামের বাসের ‘স্টুডেন্টস কমিটির’ সভাপতি শামস মিরাজ জানান, সিগনালে পড়ে হর্ন বাজানোর কারণে পুলিশ ও আনসার সদস্যরা আমাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন। আমাদের পাঁচজনকে তারা পুলিশের গাড়িতে তুলে মারধর করে। শামস মিরাজ আরও জানান, মোবাইল ফোন রেখে দেয়। মোবাইল ফোনগুলো উদ্ধারের জন্য আলোচনা করছেন। কয়েক শিক্ষার্থী অভিযোগ করেন, ট্রাফিক সার্জেন্ট শাহেদ ও আনসার সদস্য রমজান কোন কারণ ছাড়াই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শফিউল, মাসুম ও আরিফকে শার্টের কলার ধরে মারধর করেন। পরে শিক্ষার্থীরা ক্ষুব্ধ হয়ে উঠলে অন্য পুলিশের সহায়তায় তাঁরা পালিয়ে যান। এ সময় শিক্ষার্থীরা শাহেদ ও রমজানের গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করতে থাকেন। এতে সার্ক ফোয়ারা থেকে ফার্মগেট, শাহবাগ, পান্থপথ ও এফডিসিগামী সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এ ব্যাপারে রমনা থানার পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদ জানান, শিক্ষার্থীদের বহনকারী বাসটি সিগনাল না মেনে এগোতে চাওয়ায় আনসারদের সঙ্গে ঝামেলা শুরু হয়। আনসার সদস্য রমজানকে তারা গাড়িতে তুলে মারধরও করে। আহত রমজানকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদ জানান।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: