১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

নীলফামারীতে চোরাই মোটরসাইকেলসহ আটক পুলিশ কর্মকর্তা বরখাস্ত


স্টাফ রির্পোটার, নীলফামারী॥ নীলফামারীতে চোরাই মোটকসাইকেল সহ আটক গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) জাবেদ আলীকে চাকুরী থেকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। আজ সোমবার দুপুরে নীলফামারী সদর থানার ওসি শাহজাহান পাশা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন গাইবান্ধার পুলিশ সুপার এএসআই জাবেদ আলীকে চাকুরী থেবে সাময়িক বরখাস্ত করে পুলিশ লাইনে প্রত্যাহারের নির্দেশ দিয়েছেন। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা রুজুর প্রস্তুতি চলছে। তাকে নীলফামারী থেকে গাইবান্ধা পুলিশ লাইনে পাঠানো হয়েছে।ওই পুলিশ সদস্য পঞ্চগড় জেলা সদরের পানিমাছপুকুরী মাহানপাড়া গ্রামের মৃত আজগর আলীর ছেলে।

অভিযোগে জানা যায় গত শুক্রবার (৫ ফেব্রুয়ারী) রাতে রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের নীলফামারী শাখার কর্মকর্তা তরিকুল ইসলামের জেলা শহরের কলেজ পাড়ার বাড়ি থেকে দুটি মোটরসাইকেল চুরি হয়। ওই ঘটনায় শনিবার থানায় অভিযোগ করেন ব্যাংকের ওই কর্মকর্তা।

এ অবস্থায় রবিবার (৭ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে ওই পুলিশ কর্মকর্তা চুরি যাওয়া একটি মোটরসাইকেল চালিয়ে নীলফামারী শহরের উপর দিয়ে তার কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন। যা দেখতে পেয়ে মোটরসাইকেলের মালিক ও এলাকাবাসী পুলিশের ওই কর্মকর্তা জাবেদ আলীকে আটক করে মটরসাইকেলসহ থানায় সোপর্দ্দ করেন।

নীলফামারী থানা পুলিশ তাকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর তাকে নিয়ে পঞ্চগড় ও বোদায় অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানে চুরি যাওয়া অপর মোটরসাইকেলটি উদ্ধার ও চুরির ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের মধ্যে পঞ্চগড় জেলা সদরের খুনিয়াপাড়া গ্রাম থেকে আব্দুর রহমানের ছেলে লাবলুকে (৩৫) গ্রেফতার করে নীলফামারী নিয়ে আসে।

নীলফামারী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহজাহান পাশা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে তথ্য বলেন পঞ্চগড় জেলার বোদা উপজেলার বড়শশী ইউনিয়নের সরকারপাড়া গ্রামের ওয়ার্ড সদস্য রবিউল ইসলামের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে রবিউল পালিয়ে যায়। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। ওই ওয়ার্ড সদস্য রবিউল ইসলাম ও লাবলুর সহায়তায় ওই মোটরসাইকেল ক্রয় করেছিলেন এই পুলিশ কর্মকর্তা।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: