মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৮ আশ্বিন ১৪২৪, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

লভ্যাংশ বিতরণ না করায় জেড ক্যাটাগরিতে খুলনা প্রিন্টিং

প্রকাশিত : ৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৬, ০৬:১৩ পি. এম.

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কাগজ ও মূদ্রণ খাতের কোম্পানি খুলনা প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং লিমিটেডের ক্যাটাগরি পরিবর্তন হয়েছে। কোম্পানিটি ‘এ’ থেকে ‘জেড’ ক্যাটাগরিতে নেমে গেছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, আজ মঙ্গলবার থেকে এটি কার্যকর হবে। অর্থাৎ আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি পুঁজিবাজারে কোম্পানিটি ‘জেড’ ক্যাটাগরিতে লেনদেন করবে।

কারণ হিসেবে ডিএসইর ওয়েবসাইটে উল্লেখ করা হয়েছে, ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটি নির্দিষ্ট সময়ে লভ্যাংশ বণ্টনে ব্যর্থ হয়েছে। এতে ডিএসইর লিস্টিং রেগুলেশন ২৯ বিধি পরিপালন হয়নি। আর সে কারণে কোম্পানিটি ‘এ’ থেকে ‘জেড’ ক্যাটারিতে পরিবর্তিত হচ্ছে। সূত্র আরও জানা যায়, জেড ক্যাটাগরিতে স্থানান্তরের কারণে খুলনা পেপার অ্যান্ড প্যাকেজিং লিমিটেডের শেয়ার কেনার জন্য বিনিয়োগকারীরা কোনো মার্জিন ঋণ পাবেন না। বিষয়টি পরিপালন করার জন্য ট্রেকহোল্ডারদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ডিএসইর ওয়েবসাইট সূত্রে জানা গেছে, ২০১৪ সালে তালিকাভুক্ত কোম্পানিটি ওই্ বছরই বিনিয়োগকারীদের জন্য ১০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা করেছিল। কোম্পানিটি বাজার থেকে অভিহিতমূল্যে ৪ কোটি শেয়ার ছেড়ে মোট ৪০ কোটি টাকা উত্তোলন করেছিল। যদিও তালিকাভুক্তির আগেরই কোম্পানিটির জমা দেওয়া প্রসপেক্টাসে মিথ্যা তথ্য দিয়ে আইপিও অনুমোদন নিয়েছিল। কিন্তু পরে কর্তৃপক্ষ ছাপাগত ভুল বলে কমিশনকে জানিয়ে দেয়। পরে আইপিওয়ের মাধ্যমে কোম্পানিটি বাজার থেকে টাকা উত্তোলন করে। ৭৩ কোটি টাকা পরিশোধিত মূলধনের কোম্পানিটির পরিচালকদের হাতে রয়েছে ৩৯ দশমিক ৭৬ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে রয়েছে ১৫ দশমিক ৫৬ শতাংশ এবং ৪৪ দশমিক ৬৮ শতাংশ শেয়ার সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে রয়েছে।

২০১৪ সালের অর্থবছর অনুযায়ী কোম্পানিটি লভ্যাংশ প্রদান ও এজিএম করলেও ২০১৫ সালের লভ্যাংশ আইন অনুযায়ী বিতরণ করতে না পারায় জেড ক্যাটাগরিতে অবনমন করা হয়। এদিকে জেড ক্যাটাগরিতে নামিয়ে দেওয়ার দিনে কোম্পানিটির ১ লাখ ২৫ হাজার ২৩৬টি শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যার মোট মূল্য দাঁড়ায় ১৫ লাখ ৮০ হাজার টাকা। কোম্পানিটির সর্বশেষ মূল্য দাঁড়ায় ১২ দশমিক ৬০ টাকা।

প্রকাশিত : ৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৬, ০৬:১৩ পি. এম.

০৮/০২/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: