২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ইউরোপে ইসলামবিরোধী বিক্ষোভ, পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ


ইউরোপের কয়েকটি শহরে শনিবার ইসলাম ও অভিবাসীদের বিরুদ্ধে সমাবেশ করেছে বিক্ষোভকারীরা। মহাদেশে ব্যাপক শরণার্থী শ্রোতের ব্যাপারে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনার মধ্যে পুলিশ ও বিক্ষোভ বিরোধীদের সঙ্গে সংঘর্ষে লিপ্ত হয় তারা। খবর ইয়াহু নিউজের।

ইসলাম বিরোধী গ্রুপ পেজিডার সমর্থকরা ডাচ রাজধানী আমস্টারডামে প্রথমবারের মতো প্রতিবাদ সভা করতে চাইলে দাঙ্গা পুলিশ তাদের সংঘে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। সমাবেশে উপস্থিত হয়েছিল প্রায় ২শ’ পেজিডা সমর্থক, সংখ্যায় তাদের চেয়ে বেশি ছিল পুলিশ ও বামপন্থী বিক্ষোভকারীরা। বামপন্থীরা সেøাগান দিয়েছে, ‘শরণার্থীদের স্বাগত, ফ্যাসিস্টদের নয়’। ডাচ পুলিশ কয়েকজনকে আটক করেছে। পুলিশ কর্মকর্তারা ঘোড়ায় চেপে বিক্ষোভকারীদের দুই গ্রুপকে পৃথক করার চেষ্টা করে। ঠিক কতজনকে আটক করা হয়েছে তা স্পষ্ট নয়।

নিরপেক্ষ একটি পর্যবেক্ষক গ্রুপ বলেছে, জার্মানির ড্রেসডেনে পেজিডার সমাবেশে প্রায় ৮ হাজার লোক অংশগ্রহণ করেছে এবং এলবা নদীর অপর পাড়ে অনুষ্ঠিত এক বিক্ষোভ বিরোধী সমাবেশে অংশগ্রহণ করে প্রায় ৩ হাজার ৫শ’ লোক। ফ্রান্সের উত্তরাঞ্চলীয় শহর কালাইসে পুলিশ বিশৃঙ্খল অভিবাসন বিরোধী বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করার জন্য কাঁদানে গ্যাস ব্যবহার করেছে। বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ হয়। কয়েকজনকে আটক করেছে তারা। ইসলাম বিরোধী, অভিবাসন বিরোধী গ্রুপ পেজিডার প্রায় ১শ’ ৫০ সদস্য শনিবার সমাবেশে এসে সেøাগান দেয়, ‘আমরা কালাইসকে অবশ্যই মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিতে পারি না’। অভিবাসীদের কাছে আকর্ষণ রয়েছে এ বন্দর শহরের। তারা এখান থেকে চ্যানেল টানেল পথ দিয়ে ব্রিটেন পৌঁছে। কয়েক হাজার অভিবাসী সেখানে বস্তিতে অবস্থান করছে কয়েক মাস ধরে। পেজিডা দুই বছর আগে ড্রেসডেনে প্রতিষ্ঠার পর থেকে সুদূরপ্রসারী ও অভিবাসন বিরোধী ভাবাবেগ প্রতিষ্ঠায় এক চরম আকর্ষণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। জার্মান শব্দসমষ্টির আদ্যক্ষরগুলো নিয়ে গঠিত পেজিডার অর্থ দাঁড়ায় পাশ্চাত্যে ইসলামীকরণের বিরুদ্ধে দেশপ্রেমিক ইউরোপীয়রা।