মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৬ আশ্বিন ১৪২৪, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

আশুলিয়ায় শিশুছাত্রী ধর্ষিত ॥ স্ত্রীসহ মাদক বিক্রেতা গ্রেফতার

প্রকাশিত : ৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৬

নিজস্ব সংবাদদাতা, সাভার, ৭ ফেব্রুয়ারি ॥ আশুলিয়া থানাধীন পলাশবাড়ী এলাকার একটি বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে ২ দিন আটকে রেখে পালাক্রমে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনায় ওই এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী একাধিক মামলার আসামি ধর্ষক সিয়াম আহমেদ বিজয় ওরফে বিজু (২৭) ও তার কথিত স্ত্রী জান্নাতুলকে রবিবার সকালে অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ সময় তাদের দেহ তল্লাশি চালিয়ে দেশীয় অস্ত্র ও ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

ওই ধর্ষিতা ছাত্রীর বাবা জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে স্কুল থেকে ফেরার পথে তার ৫ম শ্রেণীর পড়ুয়া মেয়েকে লতিফ নামে একজন মাদক ব্যবসায়ীর সহায়তায় কৌশলে তুলে নিয়ে বিজু পলাশবাড়ী এলাকার পান্নু মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া কক্ষে আটকে রাখে। পরে কথিত স্ত্রী জান্নাতের সহযোগিতায় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে সন্ত্রাসী বিজু শিশু কন্যাকে রাতভর ধর্ষণ করে। পরের দিন শুক্রবার এভাবে নির্যাতন চালিয়ে রাত সাড়ে ৯টার দিকে তার শিশু কন্যাকে ছেড়ে দেয়া হয়। এ ঘটনা অন্য কারও কাছে বললে শিশুকন্যাসহ তাকে হত্যা করার হুমকি দেয় বিজু। ঘটনাটি তিনি থানাকে অবহিত করলে অভিযান চালিয়ে রবিবার সকাল ৭টার দিকে পলাশবাড়ি এলাকার পান্নুর বাড়ির ভাড়াটিয়া বাসার একটি কক্ষ হতে বিজু ও জান্নাতুলকে আটক করে পুলিশ। এ সময় তাদের দেহ তল্লাশি চালিয়ে ৬৩ পিস ইয়াবা ও ১টি ধারালো চাকু পাওয়া যায়। ধর্ষক বিজু বি.বাড়িয়া জেলার বুড়িচং থানাধীন বাগাসমাইল গ্রামের ফজলু মিয়ার ছেলে। সে আশুলিয়ার পলাশবাড়ি এলাকার সন্ত্রাসী, মাদক ব্যবসায়ী পাগলা রাসেলের সেকেন্ড ইন কমান্ড। বর্তমানে রাসেল একাধিক মামলার আসামি হিসেবে গ্রেফতার হয়ে জেলখানায় রয়েছে। রাসেলের অবর্তমানে বিজু মাদক ও সন্ত্রাসী কর্মকা-ের নেতৃত্ব দিয়ে আসছিল। এ ঘটনায় বিজুর সহযোগী লতিফ আত্মগোপনে রয়েছে।

এসআই মনিরুজ্জামান বলেন, ঘটনায় ধর্ষক বিজু ও তার কথিত স্ত্রী জান্নাতুলকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে এবং লতিফকেও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

প্রকাশিত : ৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৬

০৮/০২/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: