২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

পুঠিয়ায় গৃহবধূকে জবাই ॥ পাঁচ লাখ টাকা লুট


স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ পুঠিয়া উপজেলার মাইপাড়া এলাকায় গৃহবধূ শাহনাজ বেগমকে (৩৫) জবাই করে হত্যার পর ৫ লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শাহনাজ চাল ব্যবসায়ী আবুল হোসেনের স্ত্রী। স্ত্রীর গলাকাটা লাশ দেখে আবুল হোসেন জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। তাকে রাতেই রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রবিবার সকালে ঘর থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয় বলে জানান পুঠিয়া থানার ওসি হাফিজুর রহমান হাফিজ।

তিনি বলেন, শনিবার রাত ১০টার দিকে মাইপাড়া বাজারের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে বাড়ি ফিরে আবুল হোসেন তার স্ত্রীর গলাকাটা লাশ দেখতে পান। স্ত্রীর লাশ দেখে আবুল হোসেন চিৎকার দিয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। পরে স্থানীয় লোকজন গিয়ে তাকে হাসপাতালে পাঠায়।

ওসি বলেন, নিহত শাহনাজ বাড়িতে একাই ছিলেন। লাশ তার শয়ন ঘরের খাটের ওপর পাওয়া গেছে। কম্বল দিয়ে লাশটি মোড়ানো ছিল। ঘরের দরজা ও সিন্দুক খোলা পাওয়া গেছে। গলাকাটা ছাড়াও নিহত নারীর কপালে, পেটে ও বুকে একাধিক ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

আবুল হোসেনের বরাদ দিয়ে ওসি আরও জানান, শনিবার তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের হালখাতা হয়। সন্ধ্যার আগে আবুল হোসেন হালখাতার আদায় হওয়া ৫ লাখ টাকা বাড়িতে রেখে যায়।

রাত ৮টা থেকে ৯টার মধ্যে ওই টাকা ছিনিয়ে নেয়ার সময় শাহনাজকে হত্যা করা হয়েছে। তবে এ হত্যাকা-ের সঙ্গে আবুল হোসেন জড়িত থাকতে পারে বলেও সন্দেহ করছে নিহত শাহনাজের পরিবারের সদস্যরা।

তার বড় ভাই সিরাজুল ইসলাম বলেন, শাহনাজের কোন ছেলেমেয়ে নেই। তার নামে শ্যামপুর এলাকায় ১৪ লাখ টাকা মূল্যের ৭ কাঠা জমি রয়েছে। সে জমি বিক্রি করার জন্য স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিরোধ চলছিল। এরই জের ধরে ভাড়াটে খুনী দিয়ে আবুল শাহনাজকে হত্যা করতে পারে বলে সিরাজুলের ধারণা। এ ঘটনায় অজ্ঞাতদের আসামি করে সিরাজুল ইসলাম পুঠিয়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন।