২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৬ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

ঢাকা লেডিস ক্লাবের কুসুমকলি স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের বৃত্তি প্রদান


অর্থনৈতিক রিপোর্টার॥ বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার জন্য তাঁরই কন্যা জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আন্তরিকতার সাথে কাজ করে যাচ্ছেন। বঙ্গবন্ধু যেমন গরীবের বন্ধু ছিলেন, শেখ হাসিনাও তেমনি দেশের গরীব দুখি মানুষের মুখে হাসি ফোঁটানোর জন্য দিনরাত কাজ করছেন। এক সময় বাংলাদেশের ৪৪ ভাগ মানুষ দরিদ্র ছিল, এখন তা কমিয়ে ২২ ভাগে এসেছে। আগামীতে ১০ ভাগে কমিয়ে আনতে সরকার ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। মন্ত্রী বলেন, বাংরাদেশ এখন একটি সফল দেশ। পাকিস্তান থেকে বাংলাদেশ সকল ক্ষেত্রে এগিয়ে আছে। নারীর ক্ষমতায়ন, নারী ও শিশু মৃত্যুও হার হ্রাসসহ বেশ কিছু সামাজিক ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ভারতের থেকেও এগিয়ে আছে। দেশকে দরিদ্রমুক্ত করতে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার পরিকল্পিত ভাবে এগিয়ে যাচ্ছে।

বাণিজ্যমন্ত্রী রবিবার ঢাকার ইস্কাটনে ঢাকা লেডিস ক্লাব আয়োজিত কুসুমকলি স্কুলের ছাপত্র-ছাত্রীদের সমাবেশ ও বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, ঢাকা লেডিজ ক্লাবের উদ্যোগে পরিচালিত কুসুমকলি বিদ্যালয়ে গরীব চেলে-মেয়েদের দিক্ষাদান খুবই মহতি উদ্যোগ। বিজিএমইএ সহ বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছে। সকল বিত্ত্ববান মানুষকে এ মহতি কাজে সহযোগিতার জন্য এগিয়ে আসতে হবে।

উল্লেখ্য, ঢাকা রেডিজ ক্লাবের তত্ত্বাবধায়নে ঢাকায় ৯টি বিদ্যালয় পরিচালিত হয়ে আসছে। বর্তমানে ছাত্র-ছাত্রির সংখ্যা ৩৫০ জন। শিক্ষক রয়েছে ১৮ জন। এবছর বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের সহায়তায় ৮৫জন ছাত্র-ছাত্রীকেকে শিক্ষা বৃত্তি প্রদান করা হয়।

ঢাকা লেডিস ক্লাবের সভানেত্রী বেগম গুলশান আনোয়ারা হক-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাণিজ্য মন্ত্রনালয়ের সিনিয়র সচিব হেদায়েতুল্লাহ আল মামুন, বিজিএমই-এর প্রেসিডেন্ট মো. সিদ্দিকুর রহমান, বিকেএমই-এর সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট আসলাম সানী, উইমেন্স চেম্বারের প্রেসিডেন্ট সেলিমা আহমেদ। অন্যান্যেও মধ্যে বক্তব্য রাখেন ঢাকা লেডিস ক্লাবের সমাজ কল্যাণ পরিষদেও সদস্য সোহেলী আনোয়ার মামুন এবং সমাজ কল্যান সম্পাদিকা ফয়জুন নেছা মুনা।

##

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: