মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
১৮ আগস্ট ২০১৭, ৩ ভাদ্র ১৪২৪, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

তাইওয়ানে ভূমিকম্পে ১৭ তলা ভবন বিধ্বস্ত ॥ নিহত অন্তত ১৪

প্রকাশিত : ৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৬
  • ধ্বংসস্তূপের নিচে এখনও বহু মানুষ আটকা

তাইওয়ানের তাইনান শহরে শনিবার ভোরে ৬.৪ মাত্রার ভূমিকম্পে অন্তত ১৪ জন নিহত এবং বহু লোক আহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে ১০ দিন বয়সী একটি মেয়ে শিশুও রয়েছে। ভূমিকম্পে একটি ১৭ তলা ভবন ধসে গেছে। ৩ শতাধিক লোককে জরুরী ভিত্তিতে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া ৩০ জন এখন পর্যন্ত নিখোঁজ রয়েছে বলে জানা গেছে। খবর এএফপি ও বিবিসির।

ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল দক্ষিণাঞ্চলীয় তাইনান থেকে ৪৩ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে ভূপৃষ্ঠের ২৩ কিলোমিটার গভীরে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা। মূল ভূমিকম্পটির পর আরও কয়েকটি পরাঘাত অনুভূত হয়েছে বলে তাইওয়ানের কেন্দ্রীয় আবহাওয়া ব্যুরো জানিয়েছে। বিধ্বস্ত ভবনটিতে বহু মানুষ আটকা পড়ে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তাদের উদ্ধারে তড়িঘড়ি করে উদ্ধার অভিযান শুরু করা হয়েছে। চীনা চান্দ্র নববর্ষের উদযাপন উপলক্ষে লোকজন ভবনটিতে সপরিবারে উঠেছিল। ১৭ তলা ভবনটির তলাগুলো একটির ওপর আরেকটি ভেঙে ভবনটি কাত হয়ে পড়ে। ভবন বিধ্বস্তের ঘটনায় একটি নবজাতক শিশু এবং অপর একজন ৪০ বছর বয়সী ব্যক্তির মৃত্যুর খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে। দমকল বাহিনীর একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, উদ্ধারকারীরা হাইড্রোলিক মই ও ক্রেন ব্যবহার করে বিধ্বস্ত ভবনের ধ্বংসস্তূপ সরিয়ে দুইশ’ জনেরও বেশি জীবিতকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়েছে। এদের মধ্যে অনেককে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তাইনান শহরের আরো কয়েকটি ভবন ভূমিকম্পে হেলে পড়েছে। কিন্তু দমকল বিভাগের কর্মকর্তারা জানিয়েছে, বিধ্বস্ত এ্যাপার্টমেন্ট ব্লকের লোকদের উদ্ধারের কাজটিই আগে করা হচ্ছে। শহরের একটি হাসপাতালে তিন শতাধিক আহতকে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে অনেকেই সামান্য আঘাত পেয়েছেন। পুরো তাইনান শহর থেকে মোট ১১৫ জনকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে বলে দমকল বিভাগ জানিয়েছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শনে রাজধানী তাইপে ছাড়ার আগে দেশটির প্রেসিডেন্ট মা ইং জেউ জানিয়েছেন, ক্ষয়ক্ষতির ব্যাপকতা সম্পর্কে কর্তৃপক্ষের ধারণা এখনও পরিষ্কার নয়।

প্রকাশিত : ৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৬

০৭/০২/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: