১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

সড়ক দুর্ঘটনায় দুই চালক ও ছাত্রীসহ নিহত ৭


জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ সড়ক দুর্ঘটনায় নীলফামারীতে দুই চালকসহ তিন, পঞ্চগড়ে প্রতিবন্ধী, সিলেটে শিশুছাত্রী, ভালুকায় সাইকেল আরোহী ও সাভারে যুবক নিহত হয়েছে। খবর স্টাফ রিপোর্টার ও নিজস্ব সংবাদদাতাদের।

নীলফামারী ॥ জলঢাকা ও সৈয়দপুর উপজেলার পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত এবং ৩ জন আহত হয়েছে। জলঢাকা উপজেলার কালীগঞ্জ বাজারের অদূরে শনিবার সকাল সাতটার দিকে যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে পিক আপের সংঘর্ষে ঘটনাস্থলে দুইজন নিহত ও একজন গুরুতর আহত হয়। প্রত্যক্ষদর্শীর ও পুলিশ জানায়, ঢাকা থেকে ডিমলার উদেশে ছেড়ে আসা নৈশকোচ অনিক পরিবহন জলঢাকা উপজেলার কালীগঞ্জ বাজারে ঢোকার আগে ডোমার থেকে ছেড়ে আসা পিক আপের সংঘর্ষ বাঁধে। এতে ঘটনাস্থলে ব্যবসায়ী জাকির হোসেন (৫৫) ও পিক আপ চালক আবুল কালাম (৩৫) ঘটনাস্থলে নিহত হন। আহত হন পিক আপের অপর যাত্রী নিহত জাকির হোসেনের ছেলে সাদ্দাম হোসেন (২৫)। আহত সাদ্দামকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত জাকির হোসেন মুরগির খামারের ব্যবসায়ী। বাবা এবং ছেলে ওই পিক আপে চালকের বাড়ি জেলা ডোমার উপজেলার ছোটরাউতা ও কাজীপাড়ায়।

শনিবার ভোরে সৈয়দপুর উপজেলার বাইপাস সড়কে পাথর ভর্তি ট্রাকের সঙ্গে এক ট্রাক্টরের সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই ট্রাক্টর চালক মেরাজুল ইসলাম (২০)।

পঞ্চগড় ॥ আটোয়ারী উপজেলার বারোঘাটি তোড়িয়ামনি ব্রিজ এলাকায় অটোরিক্সার ধাক্কায় মকলেছ (৩০) নামে এক প্রতিবন্ধী নিহত হয়েছে। শনিবার দুপুরে আটোয়ারী উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্র থেকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় তার মৃত্যু হয়। নিহত মকলেছের বাড়ি একই উপজেলার সাবদিগজ এলাকায়। সে ওই এলাকার পশিরের পুত্র।

সূত্রে জানা গেছে, মকলেছ সকাল ৮টায় অটোরিক্সা করে আটোয়ারী আসছিল। এ সময় বারোঘাটি-আটোয়ারী সড়কের তোড়িয়ামনি ব্রিজ এলাকায় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি অটোরিক্সায় মকলেছের মাথা লেগে মাটিতে পড়ে যায়।

সিলেট ॥ সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের গোপাল এলাকায় বাসচাপায় প্রথম শ্রেণীর এক ছাত্রী নিহত হয়েছে। শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ঝর্ণা আক্তার (৬) সদর উপজেলার গোপাল গ্রামের অটোরিক্সা চালক নুর আলীর মেয়ে। সে গোপাল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী।

ভালুকা ময়মনসিংহ ॥ ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের ভালুকা উপজেলার আমতলী শনিবার দুপুরে শেরপুরগামী একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে এক সাইকেল আরোহীকে চাপা দিয়ে ফোর লেনের ডিভাইডারের উপরে উঠে যায়। এতে সাইকেল আরোহী খাইরুল আলম (২৮) গুরতর আহত হন। তাকে উদ্ধার করে ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে তিনি মারা যান। নিহত খাইরুল নেত্রকোনা জেলার সদর থানার এখলাস উদ্দিন ফকিরের পুত্র ।

সাভার ॥ শনিবার দুপুরে নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের আশুলিয়া থানাধীন বাড়ইপাড়া এলাকায় চলন্ত বাসের ছাদ থেকে পড়ে নিহত হয়েছে এক যুবক। পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে।

জানা গেছে, দূরপাল্লার বাসের ছাদে থাকা কাঠের টেবিল ধরে যাচ্ছিল ওই যাত্রী (৩২)। বাড়ইপাড়া এলাকায় পৌঁছলে ওই বাসটি ব্রেক কষলে ছাদ থেকে টেবিলের একটি অংশসহ নিচে সড়কে ছিটকে পড়ে সে। এ সময় পেছন থেকে আসা দ্রুতগামী অপর একটি বাস তাকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। নিহতের পরিচয় মিলেনি।