২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ২ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

ইউপি নির্বাচনের তফসিল আগামী সপ্তাহে


স্টাফ রিপোর্টার ॥ প্রথম ধাপে ইউপি নির্বাচনের যাবতীয় প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন করেছে ইসি। অপেক্ষা এখন শুধু তফসিল ঘোষণার। ইসি জানিয়েছে ইউপি নির্বাচনের জন্য নির্বাচন বিধিমালা ও আচরণ বিধিমালা আইন মন্ত্রণালয় থেকে চূড়ান্ত হয়ে আসলেই তফসিল ঘোষণার উদ্যোগ নেয়া হবে। জানা গেছে এ সপ্তাহে বিধিমালার ভেটিং সম্পন্ন হলেই আগামী সপ্তাহে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হতে পারে।

পৌরসভার মতো এবারই প্রথমবারের মতো ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনও দলীয় ভিত্তিতে অনুষ্ঠিত হবে। আইন অনুযায়ী শুধু চেয়ারম্যান পদেই দলীয় ভিত্তিতে নির্বাচন হবে। চেয়ারম্যান প্রার্থীরা রাজনৈতিক দলের নিবন্ধিত প্রতীক নিয়েই নির্বাচনে অংশ নেবেন। পাশাপাশি স্বতন্ত্র প্রার্থীরা চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনের সুযোগ পাচ্ছেন। সদস্য ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্যপদে আগের মতোই নির্দলীয় নির্বাচন হচ্ছে।

ইসি জানিয়েছে প্রথম দফায় নির্বাচনের জন্য সম্ভাব্য রিটার্নিং কর্মকর্তাদের নামের তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে। ইউপি নির্বাচনে দায়িত্ব পালনের জন্য উপজেলা পর্যায়ের সরকারী কর্মকর্তাদের রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসেবে বেছে নেয়া হয়েছে। ইসি সূত্রে জানা গেছে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা, শিক্ষা কর্মকর্তা, কৃষি কর্মকর্তা, পরিসংখ্যান কর্মকর্তা, সমবায় কর্মকর্তা, পরিবার-পরিকল্পনা কর্মকর্তা, পশু সম্পদ কর্মকর্তা, মৎস্য কর্মকর্তা, প্রকৌশলী কর্মকর্তা, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ও ক্ষেত্রবিশেষ সাব-রেজিস্ট্রার ও সহকারী ভূমি কর্মকর্তাকে রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসাবে চূড়ান্ত করা হয়েছে। তবে অন্যান্য নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তার পাশাপাশি সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ দেয়া হলেও এবারে তা রাখা হচ্ছে না। ইউপি নির্বাচনের জন্য প্রতি উপজেলায় ৫ থেকে ৮ জন রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ দেয়া হচ্ছে। তবে জানা গেছে একই সঙ্গে কোন কর্মকর্তাকে দুই থেকে তিনটি ইউপির বেশি রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্ব দেয়া হচ্ছে না। ইসি সচিব মোঃ সিরাজুল ইসলাম জানিয়েছেন, সারাদেশের প্রথম ধাপে নির্বাচনের প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন করেছে ইসি। জেলা নির্বাচন কর্মকর্তারা রিটার্নিং কর্মকর্তাদের তালিকা প্রস্তুত করেছে। এখন আইন মন্ত্রণালয় থেকে নির্বাচন পরিচালনা ও নির্বাচন আচরণ বিধিমালা দুটির ভেটিং সম্পন্ন হলে তফসিলের বিষয়ে কমিশন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে উল্লেখ করেন।

গত ৩১ জানুয়ারি হালনাগাদকৃত ভোটারের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করেছে ইসি। হালনাগাদে এবার ভোটার বেড়েছে ৪৪ লাখ ৩২ হাজার ৯২৭ জন। ইসি জানিয়েছে নতুন ভোটাররা এবার ইউপি নির্বাচনে ভোট দিতে পারবেন। এজন্য আগামীকালের মধ্যে এসব ভোটারদের অন্তর্ভুক্ত করে কেন্দ্রভিত্তিক ভোটার তালিকা সিডি প্রস্তুতের নির্দেশনা রয়েছে ইসির। ইসি কর্মকর্তারা বলছেন ইউপি নির্বাচনে সারাদেশের অনেক ইউপিতে ভোটগ্রহণ করতে হয় ইসির। এ কারণে সংখ্যাগত দিক দিয়ে এটি অনেক বড় নির্বাচন। তাই ইসির নিকট এ নির্বাচনের গুরুত্বও অনেক বেশি। এছাড়া নির্বাচনে তৃণমূলের মতামতে প্রতিফলন ঘটে বিধায় এ নির্বাচনের চ্যালেঞ্জও অনেক বেশি। নির্বাচনে যাতে অনিয়মের ঘটনা না ঘটে সেজন্য সবার কাছে গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের প্রত্যাশা করছে ইসি। নির্বাচন সুষ্ঠু করতে যে কোন পদক্ষেপ নেয়ার চিন্তাভাবনা রয়েছে ইসির। অতীতের ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে ইউপি নির্বাচনে কাজে লাগানোর বিষয় নিয়েও ইসির বৈঠকে আলোচনা করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

ইসি সূত্রে জানা গেছে প্রথম দফায় ২৩ মার্চ থেকে ভোট গ্রহণের পরিকল্পনা রয়েছে কমিশনের।