মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৮ আশ্বিন ১৪২৪, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

নেপালের কাছে হোঁচট খেল বাংলাদেশ মহিলা দল

প্রকাশিত : ৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৬

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ পারল না বাংলাদেশ। একরাশ আত্মবিশ্বাস নিয়ে উড়াল দিয়েছিল শিলংয়ে। প্রত্যাশা ছিল সুন্দর একটি জয় কুড়িয়ে নিয়ে অভীষ্ট লক্ষ্যের পানে শুরু হবে অগ্রযাত্রা। কিন্তু মানুষ ভাবে এক, আর হয় আরেক। প্রত্যাশার সঙ্গে প্রাপ্তির সমন্বয় হলো সুদূর পরাহত। এসএ গেমস মহিলা ফুটবলে নিজেদের উদ্বোধনী খেলায় নেপালের কাছে ০-৩ গোলে হেরে শুরুতেই হোঁচট খেল বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা ফুটবল দল (বিজয়ী দল প্রথমার্ধেই এগিয়ে ছিল ২-০ গোলে)। শুক্রবার শিলংয়ের জওহরলাল নেহরু স্টেডিয়ামে ম্যাচের শুরু থেকেই প্রাধান্য বিস্তার করে খেলে নেপাল। ২ মিনিটেই বাংলাদেশের জালে বল পাঠায় তারা। গোল করেন দীপা অধিকারী (১-০)। ১৭ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন অধিনায়ক অনু লামা (২-০)। এই অর্ধে আর কোন গোল হয়নি। তবে দ্বিতীয়ার্ধের শেষ মুহূর্তে স্কোরলাইন ৩-০ করে বিজয়ীর বেশে মাঠ ছাড়ে নেপালের মেয়েরা। গোল করেন নিরু থাপা।

প্রথম ম্যাচে হেরে হোঁচট খেলেও ফাইনালে ওঠার সম্ভাবনা এখনও শেষ হয়ে যায়নি বাংলাদেশ মহিলা দলের জন্য। এজন্য তাদের বাকি ম্যাচগুলোর সবই জেতার কোন বিকল্প নেই। আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি স্বাগতিক শক্তিশালী ভারতের বিপক্ষে (সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা) দ্বিতীয় ম্যাচে অবতীর্ণ হবে বাংলাদেশের মেয়েরা। ২০১০ এসএ গেমস ফুটবলে এই নেপালের কাছেই ০-১ গোলে হেরেছিল বাংলাদেশ। শুক্রবারের ম্যাচে জিতলে ছয় বছর আগে হারের প্রতিশোধটা কড়ায়-গ-ায় নিতে পারত বাংলাদেশ মহিলা দল। কিন্তু আফসোস, তা আর হলো কই! তবে বাংলাদেশ দলের এই হারের জন্য দায়ী করা যেতে পারে স্বাগতিক ভারতের ষড়যন্ত্রমূলক খেলার তারিখ ও সময় পরিবর্তনকে। আফগানিস্তান না থাকাতে টুর্নামেন্টের ফরমেটেও এসেছে পরিবর্তন। এবার খেলা হবে লীগ পদ্ধতিতে (মোট দল ৫টি)। সিঙ্গেল লীগ হওয়ার পর পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দুই দল খেলবে ফাইনালে। ফলে সেমিফাইনাল বলে কিছু থাকছে না। হঠাৎই সূচীতে পরিবর্তন আনে আয়োজক ভারত। পূর্বের সূচী অনুযায়ী বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ ছিল ৯ ফেব্রুয়ারি। কিন্তু সূচীতে পরিবর্তন হওয়াতে ৫ ফেব্রুয়ারিতেই প্রথম ম্যাচটা খেলতে হয় তাদের। ৯ তারিখের কথা ভেবে বাংলাদেশ দলের ভারত যাওয়ার কথা ছিল ৪ ফেব্রুয়ারি। কিন্তু তারিখ এগিয়ে আসাতে বিপাকে পড়ে যায় দল। কেননা ৪ তারিখ ঢাকা থেকে রওনা হয়ে পরের দিন সকালেই প্রথম ম্যাচটা খেলতে হবে! তাই আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে নেয়া এবং ভ্রমণক্লান্তি কাটিয়ে পর্যাপ্ত বিশ্রাম নেয়ার সেই সুযোগ পাওয়া সম্ভব নয়। এ সঙ্কট উত্তরণে তৎপর হয় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে)। তারা বাংলাদেশ অলিম্পিক এ্যাসোসিয়েশনের (বিওএ) কাছে একটি আবেদনপত্র পাঠায়। সেখানে ৪ তারিখের পরিবর্তে একদিন আগেÑ অর্থাৎ ৩ ফেব্রুয়ারি মহিলা ফুটবল দলকে পাঠানোর জন্য আবেদন করে। সে আবেদনে সাড়া দেয় বিওএ। মহিলা ফুটবল দলের শিলং যাওয়ার জন্য বিশেষ বিমানের ব্যবস্থা করা হয়। কিন্তু একদিন আগে রওনা হয়েও শেষ রক্ষা হলো না বাংলাদেশ দলের।

নতুন সূচী অনুযায়ী বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের কোন খেলা সকালে, কোন খেলা দুপুরে, আবার কোনটা সন্ধ্যায়। একেক সময়ে একেক খেলার সময় নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন ফুটবলপ্রেমীরা। স্বাগতিক ভারত নিজেদের সুবিধার্থে এবং উদীয়মান বাংলাদেশ দলকে বিপাকে ফেলতেই খেলার তারিখ এবং ম্যাচের এমন উদ্ভট সময় নির্ধারণ করা হয়েছে বলে মনে করছেন সচেতন ফুটবলপ্রেমীরা। লীগভিত্তিক ম্যাচের পর সেরা দুই দল স্বর্ণের লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে ফাইনাল ম্যাচে। আর পয়েন্ট তালিকায় তৃতীয় স্থানে থাকা দল পাবে তাম্রপদক। নিজেদের মাঠে গত আসরে (২০১০ সালে) তাম্রপদক জিতেছিল বাংলাদেশের মেয়েরা। এখন দেখার বিষয়, পরবর্তী ম্যাচগুলোতে কেমন খেলে বাংলাদেশের মেয়েরা।

প্রকাশিত : ৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৬

০৬/০২/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



শীর্ষ সংবাদ: