১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

উচ্চশিক্ষার স্বপ্ন নিয়ে রাবিতে সাত বিদেশী শিক্ষার্থী


রাবি সংবাদদাতা ॥ উচ্চশিক্ষা অর্জনের স্বপ্ন নিয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে ¯œাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষে সাতজন বিদেশী শিক্ষার্থী ভর্তি হয়েছেন। শনিবার থেকে তাদের প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরু হবে। রাবির ৬২ বছরের ইতিহাসে যেকোন শিক্ষাবর্ষে এত বেশিসংখ্যক বিদেশী শিক্ষার্থী ভর্তির নজির এই প্রথম।

এই সাত বিদেশী শিক্ষার্থীর বাড়ি সার্কভুক্ত দেশ নেপালে। তারা হলেন- ফার্মেসি বিভাগে জেভেন কুমার ও রিতিস গিরি, এ্যানিমেল হাজবেন্ড্রি এ্যান্ড ভেটেরিনারি সায়েন্স বিভাগে অমিত শাহ, ইলেকট্রিক্যাল এ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে প্রায়েজ শেখ, কম্পিউটার সায়েন্স এ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে পুষ্প ঠাকুর, ফলিত পদার্থ ও ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে একরামুল হক মিয়ান এবং ইনফরমেশন সায়েন্স এ্যান্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে সুমিত কুমার জাদভ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের এ্যাকাডেমিক শাখার উপ-রেজিস্ট্রার আসলাম হোসেন জানান, প্রতিবছর ৩৫ জন বিদেশী শিক্ষার্থীর রাবিতে পড়ার সুযোগ থাকলেও গত ৬২ বছরে ভর্তি হয়েছেন মাত্র ৫ জন। বিভিন্ন সময় এ বিশ্ববিদ্যালয় বিদেশীদের পছন্দের তালিকায় থাকলেও নানা জটিলতার কারণে অনেকের আসা হতো না। এ বছর বিশ্ববিদ্যালয় উদ্যোগ নিয়ে এসব জটিলতা নিরসন করায় বিদেশী শিক্ষার্থী ভর্তিতে রেকর্ড সৃষ্টি হয়েছে।

রাবিতে বর্তমানে নেপালের আরও তিন শিক্ষার্থী অধ্যয়ন করছেন। তারা হলেন- রণজিৎ মল্লিক, বসন্ত রাজ গিরি ও জিলানী অনসারী। তারা সবাই বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মীর আব্দুল কাউয়ূম আন্তর্জাতিক ডরমিটরিতে থাকছেন। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ে দুজন বিদেশী গবেষকও রয়েছেন। তারা হলেন- ইনস্টিটিউট অব বায়োলজিক্যাল সায়েন্সেসের সহকারী গবেষক জাপানী নাগরিক কেনজি সুজি এবং নাট্যকলা ও সঙ্গীত বিভাগের গবেষক ভারতীয় নাগরিক শতাব্দী আচার্য। এর আগে নেপালের বিনোদ কুমার দাস ফার্মেসি বিভাগ থেকে এবং আমেরিকার নাগরিক ম্যাথিউ এরিংটন ফোকলোর বিভাগ থেকে ¯œাতক (সম্মান) ডিগ্রী অর্জন করেছেন।