মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
১৯ আগস্ট ২০১৭, ৪ ভাদ্র ১৪২৪, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

শাহ আলী থানার ওসি প্রত্যাহার

প্রকাশিত : ৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৬
  • দগ্ধ চা দোকানির মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার ॥ গত বুধবার রাতে পুলিশের লাঠির আঘাতে জ্বলন্ত স্টোভ ছিটকে পড়ে দগ্ধ হয়ে এক চা দোকানির মৃত্যুর ঘটনায় রাজধানীর শাহ আলী থানার ওসিকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। এ নিয়ে ৫ কর্মকর্তাসহ ৬ পুলিশকে প্রত্যাহার করা হলো। এ নিয়ে সাময়িকভাবে বরখাস্ত হতে হলো ছয় পুলিশ সদস্যকে। টহল ডিউটিতে থাকা অপর পুলিশ সদস্যদের ঘটনার সংশ্লিষ্টতার বিষয়ে গভীর তদন্ত চলছে।

ঘটনাটি তদন্ত করতে গঠিত পুলিশের দুটি তদন্ত কমিটি কাজ করে যাচ্ছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া এ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) মোঃ মারুফ হোসেন সরদার জানান, ডিএমপি কমিশনার মোঃ আছাদুজ্জামান মিয়ার নির্দেশে শুক্রবার বিকেলে ওসিকে প্রত্যাহার করা হয়। তাকে রাজারবাগ পুলিশ সদর দফতরে সংযুক্ত করা হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংক ও ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের দুই কর্মকর্তাকে মারধরের রেশ কাটতে না কাটতেই পুলিশের কয়েক সদস্যের বিরুদ্ধে ঢাকার শাহআলী থানাধীন গুদারাঘাট এলাকার চা দোকানি বাবুল মাতুব্বরকে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ ওঠে। নিহত বাবুলের সঙ্গে প্রতিবেশী পারুলী বেগমের মাদক ব্যবসার সূত্রধরে দ্বন্দ্ব চলছিল।

বুধবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে রাজধানীর শাহআলী থানাধীন গুদারাঘাট এলাকার কিংশুক সমবায় সমিতির কাছে বাবুলের চা দোকানে যায় পুলিশের দুই সোর্স দেলোয়ার হোসেন ও আইয়ুব আলীসহ পুলিশের কয়েক সদস্য। পুলিশ সদস্যরা বাবুল মাতুব্বরকে টহল গাড়িতে তুলে নেয়ার চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে তিনি দোকানের খুঁটি ধরে বসে পড়েন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে পুলিশ কেরোসিনের স্টোভে লাঠি দিয়ে আঘাত করে। স্টোভটি ছিটকে বাবুলের গায়ে গিয়ে পড়ে। এতে মারাত্মক দগ্ধ হন তিনি। মারাত্মক দগ্ধ বাবুল চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে মারা যান।

এমন ঘটনায় পুলিশের দায়িত্ব পালনের নানাদিক নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। বৃহস্পতিবারই ডিএমপির তরফ থেকে এবং মিরপুর বিভাগের উপকমিশনারের তরফ থেকে ২টি পৃথক তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। এদিনই টহল ডিউটিতে থাকা শাহআলী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নিয়াজ উদ্দিন মোল্লা ও মমিনুর রহমান খান, সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) দেবেন্দ্র নাথ ও কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়। বৃহস্পতিবার রাতে শাহআলী থানার আরেক উপপরিদর্শক (এসআই) শ্রীধাম চন্দ্র হাওলাদারকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়। এমন ঘটনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল জাতীয় সংসদের বাইরে সাংবাদিকদের বলেন, ঘটনার তদন্ত করে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। শুক্রবার রাজধানীতে এক আলোচনা সভায় এ ঘটনা দ্রুত বিচারের আওতায় নিয়ে এক মাসের মধ্যে দায়ী পুলিশ সদস্যদের বিচার নিশ্চিতের দাবি জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতা সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত।

ঘটনাটির ব্যাপক সমালোচনা করে মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান বলেছেন, পুলিশ দিন দিন সীমা অতিক্রম করে যাচ্ছে। এখনই রুখে দেয়া প্রয়োজন। তিনি দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির পাশাপাশি দরিদ্র পরিবারটিকে পুনর্বাসনের ব্যবস্থার দাবি জানান।

প্রকাশিত : ৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৬

০৬/০২/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: