মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২২ আগস্ট ২০১৭, ৭ ভাদ্র ১৪২৪, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

বাংলাদেশ-নেপাল কোয়ার্টার ফাইনাল আজ

প্রকাশিত : ৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৬

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অনুর্ধ ১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপের সুপার লীগের প্রথম কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচ আজ অনুষ্ঠিত হবে। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে সকাল নয়টায় শুরু হওয়া এ ম্যাচে মুখোমুখি হবে স্বাগতিক বাংলাদেশ ও নেপাল। যে দল জিতবে, তারা প্রথমবারের মতো যুব বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে।

নকআউট ম্যাচ। জিতলেই উন্নীত হওয়ার সুযোগ। হারলেই বিদায়। এমন ম্যাচে দুই দলই চায় জিততে। গ্রুপ পর্বে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন দক্ষিণ আফ্রিকা, স্কটল্যান্ড ও নামিবিয়াকে সহজেই হারায় বাংলাদেশ। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়। কোয়ার্টার ফাইনালে নেপালকেও হারানোর আশা তাই করতেই পারে স্বাগতিক বাংলাদেশ। নেপালও যুব বিশ্বকাপে দারুণ খেলছে। নিউজিল্যান্ডের মতো দলকে গ্রুপ পর্বে হারিয়েছে। এরপর আয়ারল্যান্ডকেও হারায়। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে ভারতের কাছে হেরে যায়। এবার নেপালের সামনে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ অনুর্ধ ১৯ দলের কোচ মিজানুর রহমান বাবুল জেতার আশাই প্রকাশ করেছেন। বলেছেন, ‘আসলে ওইভাবে কোন কিছু নিয়ে আমরা চিন্তিত না। তাদের (নেপালের) কি আছে না আছে, এসব আমরা ভাবছি না। আমরা আমাদের পরিকল্পনাগুলো নিয়ে ভাবছি, কিভাবে সেগুলো মাঠে বাস্তবায়ন করা যায়। ওরা ছোট টিম কিংবা বড় টিম এ রকম কোন চিন্তা আমরা করতে চাচ্ছি না। ছেলেরা খুব ভাল অবস্থায় আছে।’ বোঝাই যাচ্ছে, বাবুল কতটা আত্মবিশ্বাসী।

তবে ওপেনিং নিয়ে যে সমস্যা আছে, তা সবার চোখেই পড়ছে। কিন্তু মনে হচ্ছে জেতার মধ্যে থাকায় বাংলাদেশ দল সেই বিষয়টি ভালভাবে ধরতে পারছে না। বাবুল অবশ্য ভিন্ন কথাই বলেন, ‘জিততে থাকলে যে সমস্যা বোঝা যাবে না, বিষয়টি এমন নয়। ওপেনিং ব্যাটসম্যানদের দিক দিয়ে আমরা কিছুটা সমস্যায় পড়েছি। এটা নিয়ে আমরা কাজও করছি। আশা করি ইনশাআল্লাহ সামনের ম্যাচে এটা ওভারকাম করতে পারব। ওপেনাররা পুনরায় তাদের ?পুরনো ছন্দে ফিরে আসবে।’

ওপেনারের সঙ্গে নেপাল দলটিকে নিয়েও ভাবতে হচ্ছে। নেপাল সম্পর্কে যে খুব বেশি জানা নেই বাংলাদেশের। বাবুল বলেন, ‘ভারতের বিপক্ষে নেপালের শেষ ম্যাচটিতে আমরা একঘণ্টা খেলা দেখার সুযোগ পাই। এরপর আমাদের অনুশীলন সিডিউল ছিল। তবে ম্যাচের পুরো ভিডিও আমাদের কাছে আছে। আজকে (বৃহস্পতিবার) আমরা পুরো ম্যাচটি দেখব। দেখে যতটুকু ওদের সম্পর্কে ধারণা নেয়া যায়।’ নেপালের বিপক্ষে এর আগে বাংলাদেশ হেরেছিল। এটাকে কিভাবে দেখেছে আপনার ছেলেরা? এমন প্রশ্নের জবাবে বাবুল বলেন, ‘অনেকে আসলে জানেই না নেপালের সঙ্গে আগে হেরেছিল। ওই জিনিসগুলো আমরা ওদের সামনে উত্থাপন করতে চাই না। এটা ছোটদের টুর্নামেন্ট। এখানে ওই বিষয়গুলো ম্যাটার করে না। যে দল এখানে ভাল ক্রিকেট খেলবে তারাই জিতবে।’

নেপালও চায় বাংলাদেশকে হারিয়ে সেমিফাইনালে খেলতে। এক্ষেত্রে ২০০০ সালে যুব বিশ্বকাপে যে বাংলাদেশকে হারিয়েছিল নেপাল, সেটিই অনুপ্রেরণা হিসেবে নিয়েছে দলটি। নেপাল যুব দলের কোচ জগত বাহাদুর টামাটা যেমন বললেন, ‘অবশ্যই সেমিফাইনালে ওঠার আশা আছে আমাদের। হার-জিত খেলারই অংশ। আমাদের আশা আগামীকাল (আজ) ভাল ক্রিকেট খেলে ভাল ফল বের করা।’

তবে বাংলাদেশকে কোনভাবেই ছোট করে দেখছেন না নেপাল কোচ। বাংলাদেশ নিয়ে বলেছেন, ‘বাংলাদেশ অনর্ধ ১৯ খুবই ভাল দল। তারা খুবই শক্তিশালী। আমরাও ভাল ক্রিকেট খেলতে চাই। তারা টেস্ট খেলুড়ে দেশ এবং দারুণ করছে। তাই তাদের চ্যালেঞ্জ দেয়াটা কঠিন হবে। কিন্তু আমার মনে হয় আমরাও ভাল।’ এখন দেখা যাক, স্বাগতিকদের বিপক্ষে নেপাল কতটা কী করতে পারে। ম্যাচটিতে স্বাভাবিকভাবেই ফেবারিট বাংলাদেশ। সেই ফেবারিট তকমা গায়ে জড়িয়ে রাখতে পারবে বাংলাদেশ?

প্রকাশিত : ৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৬

০৫/০২/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: