মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২২ আগস্ট ২০১৭, ৭ ভাদ্র ১৪২৪, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

জিকা ভাইরাসের টিকা তৈরির দাবি ভারতের

প্রকাশিত : ৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৬

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) জরুরী অবস্থা ঘোষণার দুই দিনের মাথায় ভারতের একটি কোম্পানি বিশ্বে প্রথম জিকা ভাইরাসের টিকা তৈরির কাজ করার কথা ঘোষণা করেছে। আমেরিকা মহাদেশে জিকা ভাইরাস দ্রুত ছড়িয়ে পড়ার পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার ডব্লিউএইচও বিশ্বজুড়ে গণস্বাস্থ্যের জন্য জরুরী অবস্থা ঘোষণা করে। এরই মধ্যে বুধবার হায়দরাবাদের ভারত-বায়োটেক কোম্পানি জিকার টিকা (জিকাভ্যাক) তৈরি করছে বলে দাবি করল। খবর এনডিটিভি অনলাইনের।

এডিস মশাবাহী জিকা ভাইরাসের সঙ্গে ‘মাইক্রোসেফালি’তে আক্রান্ত শিশু জন্মগ্রহণের সম্পর্ক থাকতে পারে বলে ধারণা করছেন চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা। মাইক্রোসেফালিতে আক্রান্ত শিশুর মস্তিষ্কের গঠন সম্পূর্ণরূপে হয় না। ফলে শিশু বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী বা শারীরিক প্রতিবন্ধী হতে পারে এমনকি মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে।

ভারত-বায়োটেকের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক কৃষ্ণা ইলা সাংবাদিকদের বলেন, এক বা দুই সপ্তাহের মধ্যে জিকাভ্যাক টিকার প্রি ক্লিনিকাল ট্রায়াল শুরু হবে। জিকা ভাইরাসের টিকা উন্নয়নে ব্রাজিলের মত লাতিন আমেরিকার দেশগুলোর সঙ্গে একত্রে কাজ করতে কোম্পানি প্রস্তুত বলে তিনি জানিয়েছেন। লাতিন আমেরিকার কয়েকটি কোম্পানি এরই মধ্যে যৌথভাবে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে বলেও তিনি জানান। এই টিকা বাজারে আসতে কত সময় লাগবে এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সরকার জিকা সংক্রমণ নিয়ে দেশজুড়ে জরুরী অবস্থা ঘোষণা করলে এবং অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এর চিকিৎসা নিয়ে কাজ করার সিদ্ধান্ত নিলে দুই বছরেরও কম সময়ের মধ্যে টিকা বাজারে আসবে।

প্রকাশিত : ৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৬

০৪/০২/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: