১৪ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

অদম্য স্নিগ্ধ অক্ষমতাকে শক্তিতে রূপান্তরিত করে পরীক্ষার হলে


নিজস্ব সংবাদদাতা, পটুয়াখালী, ৩ ফেব্রুয়ারি ॥ ¯িœগ্ধ! বিশ্বয়কর প্রতিভাবান একজন এসএসসি পরীক্ষার্থী। কারণ ¯িœদ্ধর পা দিয়ে চলার শক্তি নেই। নেই হাত দিয়ে কাজ করার ক্ষমতাও। কথা বলে অস্পষ্ট ভাষায়। কিন্তু ¯িœদ্ধ তার এই অক্ষমতাকে শক্তিতে রূপান্তরিত করেই এবার এসএসসি পরীক্ষার আসরে নিজেকে হাজির করল নিজের মতো করে। ¯িœগ্ধর পুরো নাম রাবায়েত হাকিম ¯িœগ্ধ। বাবা আবদুল হাকিম একটি বেসরকারী সংস্থায় চাকরি করেন। মা রুবিনা হাকিম গৃহিণী। দুই ভাইয়ের মধ্যে সে বড়। ছোট ভাই রাকায়েত ইসলাম নাহিন চতুর্র্থ শ্রেণীতে পড়ে। বাবা আবদুল হাকিম জানান, যশোরের রুপাদিয়া বাজার এলাকায় তার বাড়ি। জন্ম নেয়ার দুই বছর পর আমরা বুঝতে পারি ¯িœগ্ধ শারীরির প্রতিবন্ধী। চিকিৎসাও করানো হয়েছে। চিকিৎসকরা নিউরোলজিক্যাল সমস্যার কারণে ¯িœগ্ধর এই সমস্যাগুলো দেখা দিয়েছে বলে জানায়। তিনি আরও জানান, ছোটবেলা থেকেই ¯িœগ্ধ বই, খাতা নিয়ে খেলাধুলা করত। এক পর্যায়ে বাড়ির আশেপাশের শিশুদের স্কুলে যেতে দেখে তাদের সঙ্গে যেতে চাইত। ছেলের আগ্রহ দেখে প্রথমে ঘরে বসেই লেখাপড়ার অভ্যাস করে ¯িœগ্ধ।

চারকরির জন্য বিভিন্ন এলাকায় গেলেও ¯িœগ্ধর লেখাপড়া বন্ধ করা হয়নি। ২০১০ সালে বরিশালের বাকেরগঞ্জ মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পিএসসি পরীক্ষায় প্রথম বিভাগে এবং ২০১৩ সালে রবগুনার জিলা স্কুল থেকে জিএসসি বি-গ্রেডে উত্তীর্ণ হয় ¯িœগ্ধ। এর পর বদলি হয়ে পটুয়াখালী চলে আসেন তারা। ¯িœগ্ধকে ভর্তি করা হয় পটুয়াখালী সরকারী জুবিলী উচ্চ বিদ্যালয়ে। এ বছর এই বিদ্যালয় থেকে মানবিক বিভাগে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে ¯িœগ্ধ। পটুয়াখালী সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ¯িœগ্ধ পরীক্ষা দিচ্ছে।

কালীগঞ্জ পৌর মেয়র জেলহাজতে

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝিনাইদহ, ৩ ফেব্রুয়ারি ॥ কালীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান বিজুসহ দু’জনকে অস্ত্র মামলায় জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দিয়েছে আদালত। বুধবার ঝিনাইদহ আদালতে হাজির হলে আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এসএম মনিরুজ্জামান তাদের জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দেন।

গত ২ ডিসেম্বর কালীগঞ্জ পৌরসভার শ্রীরামপুর থেকে বাকুলিয়া রাস্তাটির কাজে অনিয়ন দেখে বাধা দেয় স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এতে পৌর মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান বিজু ক্ষুব্ধ হন। এ নিয়ে পরে ধাওয়া পাল্টাধাওয়া ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটে।

সিরাজগঞ্জে ৯শ’ হাঁস লুট

স্টাফ রিপোর্টার, সিরাজগঞ্জ ॥ তাড়াশ উপজেলার মাগুড়াবিনোদ ইউনিয়নের হামকুড়িয়া এলাকায় বিল থেকে মঙ্গলবার রাতে দুর্বৃত্তরা এক খামারির ৯শ’ হাঁস লুট করে।

হামকুড়িয়া গ্রামের হাজী খামারির মালিক রেজাউল করিম হাটিকুমরুল-বনপাড়া মহাসড়কের ৮নং ব্রিজ এলাকায় বিলের উন্মুক্ত খালে ৯শ’ হাঁসের অস্থায়ী আবাসস্থল তৈরি করেন। রাতে পাহারা দেয়ার জন্য দুই পাহারাদারও নিয়োগ করেন। রাতে দুর্বৃত্তরা ওই খামারের পাহারাদার ছইমুদ্দিন ও রাজ্জাকের হাত-পা বেঁধে ৯শ’ হাঁস লুট করে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: