২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৪ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

গণপরিবহনে নৈরাজ্য বন্ধে অভিযান


গণপরিবহনে নৈরাজ্য বন্ধে অভিযান

স্টাফ রিপোর্টার ॥ অটোরিকশা ও বাসের ভাড়া আদায়ে নৈরাজ্য এবং বিভিন্ন অনিয়ম বন্ধে রাজধানীতে আবারও অভিযান শুরু করেছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ-বিআরটিএ। ঢাকার মানিক মিয়া এভিনিউ, যাত্রাবাড়ী ও শাহবাগে বুধবার বেলা ২টা থেকে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে এই অভিযান চালানো হচ্ছে বলে বিআরটিএ এর এনফোর্সমেন্ট ডিপার্টমেন্টের ডিজি শাহনেওয়াজ তালুকদার জানান।

এই অভিযানে গাড়ির ফিটনেস ও লাইসেন্স পরীক্ষার পাশাপাশি বাস ও অটোরিকশায় অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ দেখা হচ্ছে। মানিক মিয়া এভিনিউয়ের অভিযানে উপস্থিত হয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, “সড়কের অরাজকতা ও বিশৃঙ্খলা রাতারাতি ঠিক করা যাবে না। তবে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকলে পরিস্থিতি ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হবে।” অবৈধ ও ফিটনেসবিহীন গাড়ি ও ফুটপাতের অবৈধ দখলকে যানজটের ‘অন্যতম কারণ’ হিসেবে চিহ্নিত করে মন্ত্রী বলেন, “আমরা ঢাকা ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলাপ করে ফুটপাত দখল সমাস্যার সমাধানের চেষ্টা করছি।”

মন্ত্রীর জনসংযোগ কর্মকর্তা আবু নাসের বলেন, “মাঝখানে কিছুদিন বন্ধ ছিল। কিন্তু সম্প্রতি মিটারে কারসাজি, ভাড়া আদায়ে অনিয়ম ও যাত্রীদের ভোগান্তির কথা বিবেচনা করে মাননীয় মন্ত্রী আজকের অভিযানে থাকছেন।” গত ১ নভেম্বর থেকে চালু হওয়া বর্ধিত ভাড়া অনুযায়ী অটোরিকশা চালকদেরকে মিটার মেনে চলার কথা থাকলেও বাস্তবে তা আর ঘটছে না বলে যাত্রীদের অভিযোগ। কোনো চালক মিটারে যেতে রাজি হলেও বাড়তি ২০-৫০ টাকা দাবি করছেন। অটোরিকশার ভাড়া নিয়ে প্রতিদিনই রাজধানীতে চালকদের সঙ্গে অপ্রীতিকর ঘটনায় জড়াচ্ছেন যাত্রীরা।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: