১৭ জানুয়ারী ২০১৮,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

কিশোরগঞ্জে ব্যাংক লুটে প্রধান আসামির ৫ বছর জেল


নিজস্ব সংবাদদাতা, কিশোরগঞ্জ, ১২ জানুয়ারি ॥ সুড়ঙ্গ খুঁড়ে কিশোরগঞ্জে সোনালী ব্যাংকের প্রধান শাখা থেকে ১৬ কোটি ৪০ লাখ টাকা লুটের ঘটনায় মামলার প্রধান আসামি হাবিব ওরফে সোহেল রানা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেয়ায় আদালত তাকে ৫ বছরের জেল, ৫ হাজার টাকা অর্থদ-, অনাদায়ে আরও ৫ মাসের বিনাশ্রম কারাদ- দিয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে মামলার চার্জ গঠনের সময় কিশোরগঞ্জের ১ম শ্রেণীর বিচারিক ২ নম্বর আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ হামিদুল ইসলাম এই রায় প্রদান করেন। এ সময় দোষ স্বীকার না করায় মামলার অন্য তিন আসামি সোহেল রানার ভাই ইদ্রিস মুন্সি, কথিত স্ত্রী মাহিলা আক্তার হিমা ও মামাশ্বশুর সিরাজউদ্দিন ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে চার্জ গঠনসহ তাদের বিরুদ্ধে বিচার কার্যক্রম চলবে বলে রায় প্রদান করা হয়। এই তিন আসামির বিরুদ্ধে আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য দিন ধার্যের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

২০১৪ সালের ২৬ জানুয়ারি রাতের কোন এক সময় শহরের রথখোলায় সোনালী ব্যাংকের প্রধান শাখার পেছন দিকে পাশের একটি বাসা থেকে মাটির নিচ দিয়ে সুড়ঙ্গ কেটে ১৬ কোটি ৪০ লাখ টাকা লুট করা হয়।