১৭ জানুয়ারী ২০১৮,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

কক্সবাজারে ধর্ষক বেপরোয়া


স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার ॥ টেকনাফের এক গৃহবধূকে কক্সবাজারে এনে হোটেলে আটকে ধর্ষণ ও তার অশ্লীল ভিডিও ও ছবি ধারণ করা ছবি সামাজিক যোগাযোগ ফেসবুকে ছেড়ে দেয়ায় ওই গৃহবধূ এখন চরম দুর্বিসহ জীবন যাপন করছে। একাধিকবার বেছে নিয়েছে আত্মহত্যার পথ। আত্মহত্যা থেকে রক্ষায় বাড়ির অপর সদস্যরা পাহারা বসিয়ে নজরে রেখেছে বলে জানা গেছে। গত ২৮ ডিসেম্বর রাতে দলবল নিয়ে অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে প্রবাসীর স্ত্রীকে মাইক্রোযোগে কক্সবাজারে নিয়ে আসে টেকনাফ পৌরসভা এলাকার ছৈয়দুর রহমানে পুত্র রশিদ আহমদ। এরপর শহরের হোটেল সিলভার সাইনে ১১৭ নং রুমে আটকে রেখে ধর্ষণ করে। তার সহযোগীরা ধর্ষণের ভিডিও ও ছবি ধারণ করে রাখে। একদিন পর খালি স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে ধর্ষিতা গৃহবধূকে ছেড়ে দেয়া হয়।

জানা যায়, ধর্ষণের পর থেকে ধর্ষক রশিদ আহমদ ফের ধর্ষিতাকে নানাভাবে কুপ্রস্তাব দিচ্ছিল। এতে ওই গৃহবধূ রাজি না হওয়ায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছেড়ে দেয় ধারণ করা অশ্লীল ছবিগুলো। এ ঘটনায় টেকনাফ উপজেলা জুড়ে তোলপাড় চলছে। এতে ধর্ষিতা ও তার পরিবার চরম বিব্রত অবস্থা পড়েছে। শুধু তাই নয়, বেশি বাড়াবাড়ি করলে ভিডিওকৃত ছবিগুলো ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়া হলে বলেও হুমকি দিচ্ছে লম্পট রশিদ। নিরুপায় প্রবাসীর স্ত্রী বলেন, তারা প্রভাবশালী হওয়ায় মামলা করতে ভয় পাচ্ছি। এতে আমরা চরম অসহায় হয়ে পড়েছি। আমি এর ন্যায় বিচার চাই।’