২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

ভিসামুক্ত সুবিধা বাতিলের নেপথ্যে ইসরাইলী লবি ॥ ইরানের দাবি


যুক্তরাষ্ট্র সম্প্রতি নিয়ম করেছে, কয়েকটি দেশ থেকে আসা ভ্রমণকারীরা ভিসা ওয়েভার বা ভিসামুক্ত প্রবেশাধিকার পাবে না। ইউরোপসহ ৩৮টি দেশের নাগরিকরা এ সুবিধা পেয়ে থাকে। তবে নিরাপত্তাজনিত কারণে সম্প্রতি কয়েকটি দেশ থেকে আসা ভ্রমণকারীদের জন্য এ সুবিধা বাতিল করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এদেশগুলোর মধ্যে ইরানের নামও অন্তর্ভুক্ত হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে তেহরান। দেশটি মনে করে এ ঘটনার নেপথ্যে ইসরাইলী লবির হাত রয়েছে। খবর ডন অনলাইনের।

মার্কিন কংগ্রেস ভিসামুক্ত সুবিধা বাতিলের যে পদক্ষেপ নিয়েছে শুক্রবার প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা তাতে সই দেয়ার পর তা আইনে পরিণত হয়েছে। এতে ইরাক, সিরিয়া ও সুদানের পাশাপাশি ইরান থেকে আসা কোন ভ্রমণকারী ভিসামুক্ত প্রবেশাধিকার পাবে না বলে জানান হয়েছে। আইনে বলা হয়েছে, ইরান, ইরাক, সিরিয়া বা সুদান এই চারটি দেশের কোন একটি দেশ যিনি গত পাঁচ বছরের মধ্যে সফর করেছেন অথবা কোন দ্বৈত নাগরিকত্বধারীর চারটি দেশের মধ্যে কোন একটি দেশের নাগরিকত্ব রয়েছে তিনি ভিসা ওয়েভার সুবিধা পাবেন না। গত মাসে প্যারিসে আইএসের বন্দুক হামলা এবং এ মাসের শুরুর দিকে ক্যালিফোর্নিয়ার সান বারনারডিনোতে একই ধরনের হামলার পর যুক্তরাষ্ট্র এ পদক্ষেপ নিল। এতে ইরান ঘুরে আসা যে কোন ব্যক্তি অথবা ইরানের নাগরিকত্ব রয়েছে এমন কোন ব্যক্তিও অন্তর্ভুক্ত রাখা হয়েছে। ইরান মনে করে, যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমা দেশগুলোর সঙ্গে জুলাই মাসে তাদের যে পরমাণু সমঝোতা হয়েছে এ পদক্ষেপ তাকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে।

দিল্লীতে আদালত প্রাঙ্গণে গুলিতে পুলিশ নিহত

ভারতের পূর্ব দিল্লীর বারবারাদুমা আদালত প্রাঙ্গণে চার বন্দুকধারীর গুলিবর্ষণে এক পুলিশ নিহত ও অপর দুজন আহত হয়েছেন। পুলিশ জানায়, বুধবার সকাল ১১টার দিকে এক বিবাদীকে আদালতে নিয়ে যাওয়ার সময় বন্দুকধারীরা এ হামলা চালায়। খবর এডিটিভির।

বিচারাধীন একটি মামলায় চেন্নু পাহলওয়ান ওরফে ইরফান নামের এক বন্দীকে আদালতে নিয়ে যাওয়ার সময় প্রতিদ্বন্দ্বী অপরাধী গোষ্ঠীর সদস্যরা তাকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। নিহত পুলিশ সদস্যের নাম রাম কুমার। পুলিশের হেড কনস্টেবল রাম বন্দীকে নিয়ে আদালতে ৭৩ নম্বর রুমের দিকে অগ্রসর হচ্ছিলেন। তার বুকে ও মাথায় তিনটি গুলি লাগে। ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। হামলাকারীরা ছয় রাউন্ড গুলি ছোড়ে। তিন হামলাকারীকে আটক করা সম্ভব হলেও অপরজন পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। পুলিশের ইস্টার্ন রেঞ্জের যুগ্ম কমিশনার সঞ্জয় বেনিওয়াল বলেন, অপরাধী দলটি আদালতে প্রবেশ করে ইরফানকে দেখা মাত্রই গুলির্বষণ করে। সে আহত হয়েছে, তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দুর্ভাগ্যজনকভাবে ইরফানের সঙ্গে থাকা পুলিশ সদস্য নিহত হন। ইরফান অপর একটি অপরাধী দলের সদস্য।