২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৮ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

১৪ দলের কেন্দ্রীয় নেতারা সিরাজগঞ্জে মাঠে নেমেছেন


স্টাফ রিপোর্টার, সিরাজগঞ্জ ॥ সিরাজগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনের প্রচারাভিযানে কেন্দ্রীয় ১৪ দলের একটি টিম নৌকার পক্ষে মাঠে নেমেছে। ১৪ দলের এই টিম বুধবার সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকায় সভা-সমাবেশসহ বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগ করেছে। তারা মেয়র পদে নৌকার পক্ষে ভোট চেযেছেন।

কেন্দ্রীয় ১৪ দলের নেতা রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র আওয়ামী লীগ নেতা খায়রুজ্জামান লিটন, সাবেক শিল্পমন্ত্রী ও সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, গণআজাদী লীগের আতাউল্লাহ খান, গণতান্ত্রিক পার্টির শাহাদত হোসেন ও আওয়ামী লীগের সাবেক এমপি তানভির শাকিল জয়, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া, সিরাজুল ইসলাম খান, কেএম হোসেন আলী হাসানসহ জেলা নেতৃবৃন্দ দুপুরে হৈমবালা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষক সমাবেশ, সমাজকল্যাণ মোড়ে নির্বাচনী সমাবেশ ও রানীগ্রাম-জানপুর এলাকায় গণসংযোগ করেছেন।

বিএনপির ১১ নেতাকর্মীকে সাময়িক বহিষ্কার

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা অফিস ॥ বিএনপি মনোনীত প্রার্থীর বিপক্ষে নির্বাচনী কাজে অংশ নেয়ায় শৃঙ্খলাভঙ্গের দায়ে খুলনায় বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের ১১ নেতাকর্মীকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। বুধবার বেলা ১১টায় কেডি ঘোষ রোডের বিএনপি কার্যালয়ে পাইকগাছা ও চালনা পৌর নির্বাচন পরিচালনা সমন্বয় কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন কমিটির প্রধান সমন্বয়ক মহানগর বিএনপির সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু। সাময়িক বহিষ্কৃতরা হলেন- দাকোপ উপজেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি সাইদুর রহমান সাইদ, স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক সুরেন্দ্র নাথ মাখন, উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ম-আহ্বায়ক কাজী সোহেল, যুগ্ম-আহ্বায়ক প্রিন্স হালদার, চালনা পৌর ছাত্রদলের প্রথম যুগ্ম-আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম, পৌর বিএনপির সিনিয়র সদস্য অলিউর রহমান, হযরত আলী, সাহেব গাজী, ছাত্রদলের সদস্য পলাশ বিশ্বাস, উপজেলা শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক রাজ্জাক মোল্লা ও পৌর শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক মিলন ভূঁইয়া।

চুয়াডাঙ্গায় ফেস্টুন ভাংচুর, প্রচারপত্রে আগুন

নিজস্ব সংবাদদাতা, চুয়াডাঙ্গা, ২৩ ডিসেম্বর ॥ চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার সাতগাড়ী মহল্লায় পাল্টাপাল্টি ফেস্টুন ভাংচুর, প্রচারপত্র ছেঁড়ার ঘটনায় উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। মঙ্গলবার রাতে কে বা কারা আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটনের ফেস্টুন-লিফলেট ও পোস্টার ছিঁড়ে ফেলে। পরে তাতে আগুন ধরিয়ে দেয়। ভাংচুর করে নির্বাচনী অফিস। এ ঘটনার পর আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ওবাইদুর রহমান চৌধুরী জিপুর পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা হয়। বুধবার সকালে পোস্টার ছেঁড়ার ঘটনাটি জানাজাানি হলে দুই গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা দানা বেঁধে ওঠে।