২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৮ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

উৎপাদনশীল খাতে বিনিয়োগ বাড়াতে ৩০ কোটি ডলার দেবে বাংলাদেশ ব্যাংক


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ উৎপাদনশীল খাতে বিনিয়োগ বাড়াতে দেশের বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে ৩০ কোটি ডলারের ঋণ সহায়তা দেবে বাংলাদেশ ব্যাংক। বিশ্বব্যাংকের আর্থিক সহায়তায় ‘ফিন্যান্সিয়াল সেক্টর সাপোর্ট প্রজেক্ট’-এর আওতায় এই ঋণ সহায়তা দেয়া হবে। বুধবার এই তহবিল ব্যবহারের জন্য ৬টি ব্যাংকের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এগুলো হলো- ডাচ্-বাংলা ব্যাংক লিমিটেড, আইএফআইসি ব্যাংক লিমিটেড, সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেড, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক লিমিটেড, ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড ও স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংকের সঙ্গে অংশগ্রহণমূলক চুক্তি স্বাক্ষর হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ডেপুটি গবর্নর নাজনীন সুলতানা। এ সময় বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রকল্প পরিচালক, বিশ্বব্যাংকের কর্মকর্তা ও সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীরা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় জানানো হয়, চলতি বছরের ১৯ নবেম্বর প্রথম পর্বে মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড, ওয়ান ব্যাংক লিমিটেড, প্রাইম ব্যাংক লিমিটেড ও আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের সঙ্গে এবং ১ ডিসেম্বর দ্বিতীয় পর্বে ৬টি ব্যাংক যথাক্রমে ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড, ঢাকা ব্যাংক লিমিটেড, ব্যাংক এশিয়া লিমিটেড, সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড ও এক্সপোর্ট ইমপোর্ট ব্যাংক অব বাংলাদেশ লিমিটেডের সঙ্গে এ তহবিল ব্যবহারে অংশগ্রহণমূলক চুক্তি স্বাক্ষর সম্পন্ন হয়।

বাংলাদেশ ব্যাংক বলছে, উৎপাদনশীল খাতের সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ব্যবসা সম্প্রসারণ, আধুনিকায়ন কিংবা নতুন কারখানা স্থাপন ইত্যাদি কার্যক্রম সম্পন্ন করতে নতুন ও উন্নত কারিগরি মানসম্পন্ন মূলধনী যন্ত্রপাতি আমদানি করার প্রয়োজন। আর এতে দরকার দীর্ঘমেয়াদে বিনিয়োগ। কিন্তু উচ্চ সুদে দীর্ঘমেয়াদে এ ধরনের বিনিয়োগের আর্থিক উপযোগিতা না থাকায় বাংলাদেশের উৎপাদনশীল খাতের সক্ষমতা আশানুরূপভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে না। এতে স্বাভাবিকভাবেই প্রতিযোগিতামূলক বিশ্ববাণিজ্যে বাংলাদেশ কাক্সিক্ষত মাত্রায় সফলতা অর্জন করতে পারছে না। এই প্রতিকূলতা দূর করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ ব্যাংক বিশ্বব্যাংকের আর্থিক সহায়তায় ‘ফিন্যান্সিয়াল সেক্টর সাপোর্ট প্রজেক্ট’-এর আওতায় প্রায় ৩০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের একটি তহবিল গঠন গ্রহণ করেছে। এ তহবিল থেকে অংশগ্রহণকারী আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহের মাধ্যমে উৎপাদনশীল শিল্প খাতে ৫ থেকে ১০ বছর মেয়াদী বৈদেশিক মুদ্রায় অর্থায়ন সুবিধা প্রদান করা হবে।

অনুষ্ঠানে ডেপুটি গবর্নর নাজনীন সুলতানা আশাপ্রকাশ করে বলেন, অংশগ্রহণকারী ব্যাংকগুলো এই তহবিল যথাযথভাবে ব্যবহার করে শিল্প খাতের উৎপাদন বৃদ্ধির পাশাপাশি রফতানি খাতের পূর্ণমাত্রার সম্প্রসারণ ঘটাতে সক্ষম হবে। তবে এই উন্নয়ন প্রচেষ্টায় পরিবেশগত কোন ঝুঁকির সৃষ্টি না হয় সেই দিকে কঠোর নজর রাখার ব্যাপারেও সতর্ক থাকার নির্দেশ দেন তিনি। তিনি জানান, এ তহবিল ব্যবহারের ক্ষেত্রে ব্যাংকগুলোর সুশাসনের দিকেও লক্ষ্য রাখা হয়েছে। কেবল একটি নির্দিষ্ট মান অর্জনের পরই ব্যাংকগুলো এ তহবিলে অংশগ্রহণ করতে পারবে এবং অংশগ্রহণকারী ব্যাংকগুলোর ক্যামেলস্ সূচক অনুযায়ী তাদের প্রযোজ্য সুদের হার নির্ধারিত হবে। এতে করে সুশাসনের মানোন্নয়নের সঙ্গে সঙ্গে ব্যাংকগুলোর আর্থিক প্রণোদনাও থাকছে।