২৪ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

অনিয়মের অভিযোগ ॥ ২০ হজ এজেন্সিকে সৌদি নোটিস


অনলাইন ডেস্ক ॥ চলতি বছর হজে অনিয়মের অভিযোগে বাংলাদেশের আরও ২০ হজ এজেন্সিকে কারণ দর্শাও নোটিস দিয়েছে সৌদি সরকার।

অভিযোগ খণ্ডনে এসব এজেন্সির কাছে কোনো প্রমাণ বা মতামত থাকলে তা আগামী ২০ জানুয়ারির মধ্যে জানাতে বলেছে সৌদি হজ কর্তৃপক্ষ।

ধর্ম মন্ত্রণালয় এসব হজ এজেন্সিকে চিঠি দিয়ে নোটিসের বিষয়টি জানিয়েছে। এর আগে গত ৮ নভেম্বর একইভাবে আরও ১৬টি এজেন্সিকে কারণ দর্শাতে বলেছিল সৌদি কর্তৃপক্ষ।

এবারের নোটিসে চুক্তির বাইরে হজযাত্রীদের অন্য বাড়িতে রাখা, একই বাড়িতে অতিরিক্ত হজযাত্রীর আবাসন, হোটেল বিল পরিশোধ না করাসহ বিভিন্ন অভিযোগ এনেছে সৌদি হজ মন্ত্রণালয়ের পর্যবেক্ষণ কমিটি।

এন আর বি এয়ার ইন্টারন্যাশনাল, মদিনা মোনাওয়ারা এয়ার সার্ভিস, মারওয়া ইন্টারন্যাশনাল ট্রাভেলস, গোল্ডেন হলিডেজ ইন্টারন্যাশনাল, ড্রিম ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস ওভারসিজ, খান ট্যুরস অ্যান্ড ট্রাভেলস, মীমস ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস লিমিটেড, আলভী ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস, আল আরাফা ওভারসিজ এবং নীড় ট্রাভেলসকে এই নোটিস দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া ব্রাইট ট্রাভেলস, আপ রাইট ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস লিমিটেড, সিরাজগঞ্জ ট্যুরস অ্যান্ড ট্রাভেলস, হিডওয়ে ওভারসিজ, আর এস মজুমদার ট্রাভেলস, দিশারী এয়ার সার্ভিস, মীজাব ওয়ার্ল্ড ওয়াইড সার্ভিসেস, দেশ ভ্রমণ লিমিটেড, আত তাকওয়া ট্যুরস অ্যান্ড ট্রাভেলস ও সিদরাত ট্যুরস অ্যান্ড ট্রাভেলসও অনিয়মের অভিযোগে নোটিস পেয়েছে।

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানান, গত হজ মৌসুমে সৌদি হজ মন্ত্রণালয়ের পর্যবেক্ষণ কমিটি এসব অনিয়মের বিষয়ে মক্কায় বাংলাদেশের হজ মিশনকে জানায়। আর হজ মিশন থেকে গত ১৭ ডিসেম্বর ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিবকে এ বিষয়ে চিঠি দেওয়া হয়।

বাংলাদেশ থেকে এবার এক লাখ ছয় হাজার ৫৫০ জন হজ করেছেন। বেসরকারি হজযাত্রী ব্যবস্থাপনার এবার ৭৮৩টি হজ এজেন্সি যুক্ত ছিল।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: