২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

অসহায় পরিবারের মামলা নিচ্ছে না পুলিশ


নিজস্ব সংবাদদাতা, লালমনিরহাট, ২২ ডিসেম্বর ॥ মঙ্গলবার বিকেলে লালমনিরহাট প্রেসক্লাবে এক অসহায় এতিম পরিবারে নিরাপত্তা চেয়ে অবস্থান নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে। তাদের দাবি বিএনপিপন্থি মুক্তিযোদ্ধা কফিল উদ্দিনের নেতৃত্বে দুর্বৃত্তরা এতিমের সম্পত্তি দখল করতে হামলা করে পরিবারের চার সদস্যকে গুরুতর আহত করেছে। আহতরা রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। কিন্তু অদৃশ্য কারণে মামলা রেকর্ড হয়নি।

অভিযোগ করা হয়, মুক্তিযোদ্ধা কফিল উদ্দিন তার বড় ভাই তমিজ উদ্দিন তার দ্বিতীয় ছেলে মরহুম সাদেকুল ইসলাম প্রায় ২৯ বছর পরে শরিকের জমি ক্রয় করে ভোগ দখল করে আসছে। এতিম অসহায় পরিবারটির দুই বিঘা জমি অবৈধ দখলে নিতে ৬ ডিসেম্বর হামলা করা হয়। হামলায় মুক্তিযোদ্ধার এতিম তিন নাতি আহসান হাবিব সাগর, এসএসসি পরীক্ষার্থী হুমায়ুন কবির সোহাগ, আবু হান্নান আকাশ ও ভাতিজা বউ হাসনা বেগমকে রক্তাক্ত জখম করা হয়। গ্রামবাসী আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে তাদের অবস্থার অবনতি হলে পরে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদের মধ্যে আহসান হাবিব সাগর, এসএসসি পরীক্ষার্থী হুমায়ুন কবির সোহাগের অবস্থা আশস্কাজনক। এসএসসি পরীক্ষার্থী হুমায়ন কবির সোহাগ তার স্মৃতিশক্তি হারিয়ে ফেলেছে। এই ঘটনার পরপরেই হাতীবান্ধা থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। কিন্তু অদৃশ্য শক্তির প্রভাবে মামলাটি রেকর্ড হয়নি। অসহায় এতিম পরিবারটিকে এখন অভিযোগ তুলে নিতে হুমকি দেয়া হচ্ছে।

পরিবারটিকে হয়রানি করতে উল্টো থানায় মামলা দায়ের করার চক্রান্ত চলছে। কথিত মুক্তিযোদ্ধা কফিল উদ্দিন স্থানীয় বিএনপির সমর্থক, তার ছেলে রোকন উদ্দিন স্থানীয় ইউনিয়ন ছাত্র দলের সভাপতি বলে জানা যায়।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: