মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৭ আশ্বিন ১৪২৪, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

ম্যানসিটিকে হারিয়ে শিরোপাস্বপ্ন আর্সেনালের

প্রকাশিত : ২৩ ডিসেম্বর ২০১৫
ম্যানসিটিকে হারিয়ে শিরোপাস্বপ্ন আর্সেনালের
  • ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগ, ট্রফি জয়ের ভাবনা গানার্স কোচ আর্সেন ওয়েঙ্গারের, আশা ছাড়ছেন না সিটি কোচ ম্যানুয়েল পেলেগ্রিনি, আর্সেনাল সমর্থক ম্যারাডোনা, আর্সেনাল ২-১ ম্যানচেস্টার সিটি

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ প্রায় এক যুগের হতাশা কাটাতে এবার মরিয়া আর্সেনাল। কাক্সিক্ষত লক্ষ্যে নোঙর ফেলতে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগ ফুটবলে এগিয়ে চলেছে গানার্সরা। স্বপ্ন একটাই শিরোপা জয় করা। এ লক্ষে বড় একটা বাধা পেরিয়েছে আর্সেন ওয়েঙ্গারের দল। সোমবার রাতে ইপিএলের একমাত্র ম্যাচে আর্সেনাল ২-১ গোলে হারিয়েছে ম্যানচেস্টার সিটিকে। গত পাঁচ লীগ ম্যাচে এটি সিটির তৃতীয় হার এবং পুরো মৌসুমে পঞ্চম।

ঘরের মাঠ লন্ডনের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে গানার্সদের হয়ে গোল করেন থিও ওয়ালকট ও অলিভিয়ের জিরুড। সিটির একমাত্র লক্ষ্যভেদ করা ফুটবলার ইয়াইয়া তোরে। আর্সেনাল শেষবারের মতো ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের শিরোপা জিতেছিল ২০০৪ সালে। এরপর বেশ কয়েকবার কাছাকাছি গেলেও শেষ হাসি হাসতে পারেনি দলটি। গত মৌসুমেও বেশিরভাগ সময় ভাল অবস্থানে থেকে শেষ পর্যন্ত তীরে এসে তরী ডোবে। এ কারণে প্রায়ই বেশ সমালোচনার মুখে পড়তে হয় কোচ আর্সেন ওয়েঙ্গারকে। তবে এবারের মৌসুমে সব সমালোচনার জবাব দিয়ে দিতে পারে আর্সেনাল।

নিজেদের মাঠে দারুণ এই জয় দিয়েও অবশ্য শীর্ষস্থান দখল করতে পারেনি আর্সেনাল। ১৭ ম্যাচ শেষে ৩৬ পয়েন্ট নিয়ে তারা আছে দ্বিতীয় স্থানে। প্রথম স্থানে থাকা লিচেস্টার সিটির সংগ্রহ ৩৮ পয়েন্ট। তিন নম্বরে থাকা ম্যানচেস্টার সিটির সঙ্গে অবশ্য পয়েন্ট ব্যবধান অনেকখানিই বাড়িয়ে নিতে পেরেছে আর্সেনাল। ৩২ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে ম্যানসিটি।

হ্যামস্ট্রিং ইনজুরির কারণে এই ম্যাচেও আর্সেনাল শিবিরে ছিলেন না এ্যালেক্সিস সানচেজ। এরপরও ঘরের সমর্থকদের হতাশ করেনি গানার্সরা। সিটির বিপক্ষে গত পাঁচ ম্যাচে এটি আর্সেনালের শতভাগ জয়। আর অন্য ম্যাচের মতোই মৌসুমে ১৫তম গোলে সহায়তা করে যথারীতি জার্মান তারকা ওজিল ছিলেন সবার সেরা। ম্যাচের ৩৩ মিনিটে মেসুত ওজিলের পাস থেকে বল পেয়ে আর্সেনালের হয়ে প্রথম গোলটি করেন ইংলিশ স্ট্রাইকার থিও ওয়ালকট। প্রথমার্ধের শেষ মুহূর্তে (৪৫ মিনিট) আরেকটি গোল করে আর্সেনালকে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে নেন জিরুড। অনেক চেষ্টার পর ৮২ মিনিটে সিটির হয়ে একটি গোল পরিশোধ করতে সক্ষম হন ইয়াইয়া তোরে।

বক্সিং ডে’তে সাউদাম্পটন সফরে যাবে ওয়েঙ্গারের দল। সিটিকে হারানোর পর ওয়েঙ্গার বলেন, বর্তমানে দলের মধ্যে অন্যরকম এক আবহ বিরাজ করছে। প্রতি জয়ই দলের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দিচ্ছে, এমনকি বড় কিংবা ছোট দল যাই হোক না কেন। সত্যিকার অর্থেই আমরা দারুণ খেলছি। আর্সেনাল কোচ আরও বলেন, আমরা শিরোপা জিততে পারব। এটা বলার সময় এখনই আসেনি। কিন্তু এটা আমাদের বিশ্বাস আরও পাকাপোক্ত করেছে।

আর্সেনালের সাফল্যের দিনে সিটি কোচ ম্যানুয়েল পেলেগ্রিনি সঙ্গতকারণেই হতাশ। ইনজুরি আক্রান্ত অধিনায়ক ভিনসেন্ট কোম্পানির পরিবর্তে ম্যাচে আরেকবার ব্যর্থতার স্বাক্ষর রেখেছেন দুই সেন্টার ব্যাক এলিয়াকুইম মানগালা ও নিকোলাস ওটামেন্ডি। পেলেগ্রিনি ম্যাচ শেষে বলে, আমি সত্যিই অস্বস্তিতে আছি। কারণ আর্সেনালের থেকে আমরা ভাল খেলেছি। বল পজিশন পেলেই আমরা সুযোগ সৃষ্টি করেছি। তবে থিও ওয়ালকটের দুর্দান্ত গোলটিই মূলত পার্থক্য গড়ে দিয়েছে। তবে এখনও আমরা শিরোপার জন্য লড়াই চালিয়ে যাব।

এই ম্যাচে আর্জেন্টাইন ফুটবল ঈশ্বর দিয়াগো ম্যারাডোনা আর্সেনালের জার্সি পরে দলটিকে সমর্থন করেন। জাতীয় দল আর্জেন্টিনার হয়ে জিতেছেন বিশ্বকাপ। মাঠ কাঁপিয়েছেন ইতালিয়ান ক্লাব নেপোলির হয়ে। খেলেছেন বর্তমান বিশ্বসেরা স্প্যানিশ দল বার্সিলোনার হয়েও। কিন্তু ক্যারিয়ারে কখনও ইংলিশ পাড়ায় পা দেননি ম্যারাডোনা। তবে তার কন্যা জিয়ান্নিনার জন্যই আর্সেনালের অনুশীলন জার্সি গায়ে জড়ান আলবেসেলিস্তাদের সাবেক অধিনায়ক। ম্যারাডোনার মেয়ের এমন ইচ্ছে কি তাহলে সাবেক স্বামী সার্জিও এ্যাগুয়েরোকে উদ্দেশ্য করে! কেননা ম্যাচটিতে আর্সেনালের প্রতিপক্ষ ছিল ম্যানচেস্টার সিটি। ইনজুরি কাটিয়ে ম্যাচটি খেলেনও এ্যাগুয়েরো।

প্রকাশিত : ২৩ ডিসেম্বর ২০১৫

২৩/১২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: