মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৫ আশ্বিন ১৪২৪, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

দলীয় প্রতীকে স্থানীয় নির্বাচন সরকারের ভুল সিদ্ধান্ত ॥ নোমান

প্রকাশিত : ২৩ ডিসেম্বর ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ জোর করে পৌরসভা নির্বাচনে জিতে সরকার বিশ্ববাসীকে তাদের জনসমর্থন দেখাতে চায় বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান। মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে শ্রমিক দল আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, যে নির্বাচনে দেশের জনগণ ভোট দিতে সাহস পায় না, তা কিসের নির্বাচন, কিসের ভোট?

নোমান বলেন, রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা না করে দলীয় প্রতীকে স্থানীয় সরকার নির্বাচন আওয়ামী লীগ সরকারের আরেকটি ভুল সিদ্ধান্ত। তিনি বলেন, পৌর নির্বাচনে আমরা জয়লাভ করতে পারি আবার হারতেও পারি। কিন্তু এ নির্বাচনে অংশ নিয়ে রাজনীতিতে আমরা জয়লাভ করেছি। তিনি বলেন, বিএনপির সঙ্গে আলোচনা না করে নির্বাচন কমিশন দেলীয় প্রতীকে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেছে।

আব্দুল্লাহ আল নোমান বলেন, বিএনপি নেতাকর্মীরা নির্বাচনের মাঠে কাজ করতে পারছেন না। প্রার্থীরাও নিরাপদে প্রচার চালাতে পারছেন না। তিনি বলেন, বর্তমানে নির্বাচন কমিশন নামে যে কমিশন দেশে আছে, তার মাধ্যমে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। এটি সরকারের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরিত হয়েছে। তারপরও নির্বাচন কমিশনকে বলব আপনারা অবাধ ও নিরপেক্ষভাবে নির্বাচন করুন। তাহলে অতীতের অপকর্মের দুর্নাম ঘুচবে। আপনাদের প্রতি জনগণ যে ঘৃণা প্রকাশ করেছে তা কমে যাবে। আর এবার যদি ৫ জানুয়ারির মতো নির্বাচন হয় তাহলে জনগণের কাছে আপনারা আরও ঘৃণিত হবেন। তাই এটাই আপনাদের জন্য শেষ সুযোগ। এরপর আর কোন সুযোগ আসবে না।

সরকারকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, সকল রাজনৈতিক শক্তি ঐক্যবদ্ধ হয়ে আমরা একটি পদ্ধতি বের করতে পারি। দেশের মানুষের ওপর যে নির্যাতন হচ্ছে তা রাউন্ড টেবিল বৈঠক করে আলোচনা করা যায়।

শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসাইনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম খান নাসিম, সংগঠনের নেতা মেহেদী আলী খান, কাজী শেখ নুরুল্লাহ বাহার, মোস্তাফিজুর রহমান প্রমুখ।

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, নির্বাচন কমিশন সরকারের কাছে আত্মসমর্পণ করেছে। তারা সাংবিধানিক ক্ষমতা ব্যবহার না করে নির্বাচনকালীন নিরাপত্তা ও সন্ত্রাস মোকাবেলায় সরকারের সহযোগিতা চেয়েছে। বর্তমান নির্বাচন কমিশন তাদের স্বাধীনতা চায় না তাই তারা মেরুদ-হীন হয়ে পড়েছে।

পৌর নির্বাচনে দল বিরোধী কাজ করায় বিএনপির ৬ নেতা বহিষ্কার ॥ পৌর নির্বাচনে দল বিরোধী কাজ করায় বিএনপির ৬ স্থানীয় নেতাকে বহিষ্কার করা হয়েছে। বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ বহিষ্কারের তথ্য জানান।

বহিষ্কৃতরা হলেন, চট্টগ্রামের চান্দনাইশ পৌর বিএনপির সভাপতি নূরুল আনোয়ার ও সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, রাজশাহীর চারঘাট পৌর বিএনপির সভাপতি কামরুদ্দিন সরকার, আড়ানি পৌর বিএনপির আহ্বায়ক নজরুল ইসলাম মাস্টার, নারায়ণগঞ্জের তারাবো পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সফিজুল ইসলাম চৌধুরী এবং টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলা বিএনপির সদস্য সানোয়ার হোসেন সজীব।

১ জানুয়ারি ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বক্তব্য রাখবেন খালেদা ॥ ১ জানুয়ারি বিএনপির সহযোগী সংগঠন ছাত্রদলের ৩৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনে আলোচনাসভায় বক্তব্য রাখবেন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। ওইদিন বিকেলে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া আগের দিন রাত ১২টা ১ মিনিটে গুলশান কার্যালয়ে ছাত্রদল নেতাদের নিয়ে কেক কাটবেন খালেদা জিয়া।

প্রকাশিত : ২৩ ডিসেম্বর ২০১৫

২৩/১২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: