মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৮ আশ্বিন ১৪২৪, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

মুন্সীগঞ্জ ও মিরকাদিম পৌর নির্বাচন প্রচারনা জমে উঠেছে

প্রকাশিত : ২২ ডিসেম্বর ২০১৫, ০৫:১১ পি. এম.
মুন্সীগঞ্জ ও মিরকাদিম পৌর নির্বাচন প্রচারনা জমে উঠেছে

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ মুন্সীগঞ্জ ও মিরকাদিম পৌরসভা জমে উঠেছে। দিন যতই যাচ্ছে ততই যাচ্ছে ততই প্রচারনান বাড়ছে। বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট প্রার্থনা ছাড়াও উঠান বৈঠক, মাইকিং, মোবাইলে ম্যাসস, ফেস বুকসহ সামাজিক গণ মাধ্যমগুলো নির্বাচনী প্রচারনায় সরব। আর পোস্টারে ছেয়ে গেছে ধলেশ্বরী তীরের মফস্বলেরর শহর দু’টি।

জেলা শহর মুন্সীগঞ্জে মেয়র পদে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে ধানের বর্তমান মেয়র শীষ প্রতীকের একে এম ইরাদত মানু ও নৌকার ফয়সাল বিপ্লবের মধ্যে। তবে এই পৌর সভায় তালপাখা প্রতীকের ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মহিউদ্দিন ব্যাপারী ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মোবাইল ফোন প্রতীকের রেজাইল ইলাম সংগ্রামও প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছে। মুন্সীগঞ্জ পৌর সভায় কাউন্সিলর প্রার্থীদের প্রচারনাও যেন আরও বেশী। মহল্লা মহল্লায় তারা নির্বাচনী ক্যাম্প করে এবং ভোটাদের মনজয়ে হরেক রকম কৌশল অবলম্বন করছে। ৯টি ওয়ার্ডে সাধারণ কমিশনার পদে এখানে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে ৩৯ প্রার্থী। আর সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১,২ ও ৩ নম্বর ওয়ার্ডে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন নার্গিস আক্তার। বাকী ২টি পােদ প্রার্থী রয়েছেন ৮ জন। এই পৌর সভায় প্রায় ৪৫ হাজার ভোটার রয়েছে।

আর মিরকাদিম পৌরসভায় ভোটার সংখ্যা প্রায় সাড়ে ৩৩ হাজার। এই পৌরসভায় বর্তমান মেয়ার আওয়ামী লীগের শহিদুল ইসলাম শাহিন, বিএনপির শামসুর রহমান, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মন্সুর আহম্মেদ কালাম ও সাবেক মেয়র জেপির মোহাম্মদ হোসেন রেনুর সাথে চতুরমুখী প্রতিদ্বন্দ্বিতার আভাস পাওয়া যাচ্ছে। এই পৌর সভায় সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী ৩০ ও মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী ১০।

এদিকে প্রার্থীরা নানা রকম প্রতিশ্রুতির ফুৈ ঝুড়ি দিলেও ভোটারা এবার বেশ সচেতন। দলীয় প্রতীকে এবারের নির্বাচন হলেও অনেক ক্ষেত্রেই প্রার্থীর যোগ্যতা বিবেচনা করেই ভোটারধিকার প্রয়োগ করবে বলে অধিকাংশ ভোটাররা জানিয়েছেন।

প্রকাশিত : ২২ ডিসেম্বর ২০১৫, ০৫:১১ পি. এম.

২২/১২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: