২২ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

হুড়োহুড়িতে নামতে গিয়ে ডাক্তারের মৃত্যু


স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর মতিঝিলের বক চত্বরে একটি বহুতল ভবনের চতুর্থ তলায় আগুনের ধোঁয়া ও আতঙ্কে অসুস্থ হয়ে এক চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। তার নাম শাহনেওয়াজ বিন তাবিদ (৬৫)। তিনি মাতুয়াইল মা ও শিশু হাসপাতালের সাবেক পরিচালক। পল্টন ইসলামী ব্যাংক স্পেশালাইজড হাসপাতালে কনসালট্যান্ট হিসেবে কর্মরত ছিলেন তিনি। তিনি রমনার সিদ্ধেশ্বরী এলাকায় ইস্টার্ন ফ্লাওয়ারে সপরিবারে থাকতেন। তার স্ত্রী সাবিনা সুলতানাও পেশায় চিকিৎসক। তাদের বাড়ি খুলনায়। নিহত চিকিৎসক এক ছেলের জনক ছিলেন।

ফায়ার সার্ভিস সূত্র জানায়, রাস্তার পাশে ঝুলন্ত তারে আগুন লাগার পর আতঙ্কিত হয়ে পাশের ওই বহুতল ভবনের তৃতীয় ও চতুর্থ তলার কয়েকটি কক্ষে ধোঁয়া ঢোকায় লোকজন আতঙ্কে হুড়োহুড়ি করে নামতে গিয়ে ওই চিকিৎসক অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোমবার বেলা পৌনে বারোটার দিকে দিলকুশার বিমান অফিসের পাশে হাজী ম্যানশনের ১০ তলা ভবনের মাঝ বরাবর রাস্তার পাশে ঝুলন্ত বৈদ্যুতিক তারে আগুন লাগে। আগুন লাগার পর আতঙ্কিত হয়ে পাশে ওই হাজী ম্যানশনের বহুতল ভবন থেকে হুড়োহুড়ি করে নামতে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন ডাক্তার শাহনেওয়াজ বিন তাবিদ নামে ওই ব্যক্তি। পরে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুর সোয়া একটার দিকে তার মৃত্যু হয়। ফায়ার সার্ভিস হেডকোয়ার্টারের কর্মকর্তা এনায়েত হোসেন জানান, হাজী ম্যানশনের মাঝ বরাবর সামনের তারে আগুন লাগার পর ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে। দমকল কর্মীরা কিছুক্ষণের মধ্যে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

নিহতের পরিবার জানায়, গত বছর শাহনেওয়াজ অবসরে যাওয়ার পর মিরপুরের একটি শিশু হাসপাতালে যোগ দেন। স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজে থেকে এমবিবিএস পাস করে শাহনেওয়াজ মিটফোর্ড হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে কাজ করেছেন। নিহতের ভায়রা তারেকুল কাদের জানান, শাহনেওয়াজের মরদেহের ময়নাতদন্ত করা হবে না।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: