২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ট্রাম্পই আইএসের বড় রিক্রুটার


মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক পার্টির অগ্রগামী মনোনয়ন প্রত্যাশী হিলারি ক্লিনটন অগ্রগামী রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ইসলামিক স্টেটের ‘সবচেয়ে বড় রিক্রুটার’ বলে অভিহিত করেছেন। এটি ছিল সব মুসলিমের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ নিষিদ্ধ করতে ট্রাম্পের আহ্বানের প্রতি হিলারির অন্যতম তীব্র নিন্দাবাদ। তিনি শনিবার তার দলের প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থীদের এক বিতর্কে অংশ নিচ্ছিলেন। খবর টেলিগ্রাম ও ওয়াশিংটন পোস্টের।

হিলারি বলেন, তারা আরও চরমপন্থী জিহাদীদের সংগ্রহ করতে ডোনাল্ড ট্রাম্পের ইসলাম ও মুসলিমদের অপমান করার ভিডিও দেখাতে লোকজনের কাছে যাচ্ছে। কাজেই আমি বলতে চাই, এ ধরনের ভীতির সৃষ্টি করে প্রতিক্রিয়া জানানো আমেরিকার স্বার্থের অনুকূল নয়। যখন ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রতিদ্বন্দ্বী মনোনয়ন প্রত্যাশীরা একজন সিনেটর ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে হিলারির রেকর্ডের সমালোচনা করেন, তখন তিনি তার আসল প্রতিপক্ষ কে তা বুঝিয়ে দিতে বিলম্ব করেননি।

ট্রাম্প বিতর্ক অনুষ্ঠানে অন্যদের সমালোচনার লক্ষ্যস্থলেও পরিণত হন। ম্যারিল্যান্ডের সাবেক গবর্নর মার্টিন ও ম্যালে ট্রাম্পের আহ্বানকে ‘কোটিপতির ফ্যাসিবাদী আবেদন’ বলে অভিহিত করেন। সিনেটর বার্নি স্যান্ডারস মত ব্যক্ত করেন যে, ট্রাম্প বর্ণ ও জন্মস্থানের ভিত্তিতে আমাদের মধ্যে বিভাজন সৃষ্টি করতে চাইছেন। ট্রাম্প আমেরিকার রাজনীতিতে অপরিহার্য হয়ে চলেছেন। রিপাবলিকান পার্টির এক বিতর্ক অনুষ্ঠানে মূল ব্যক্তিত্বে পরিণত হওয়ার মাত্র কয়েকদিন পর ডেমোক্রেটিক প্রতিদ্বন্দ্বীরা তাকে আক্রমণ করলেন। সিনেটর বার্নি স্যান্ডারস এবং সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন মুদ্রানীতি, জাতীয় নিরাপত্তা ও আগ্নেয়াস্ত্রের মতো ইস্যুগুলো নিয়ে বাকবিত-ায় লিপ্ত হন। এটি ছিল দলের প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থীদের টেলিভিশনে সম্প্রচারিত এ বছরের শেষ বিতর্ক অনুষ্ঠান। এতে দলের দুই নেতৃস্থানীয় প্রার্থীর মধ্যে তীব্র মতপার্থক্য স্পষ্ট হয়ে ওঠে। হিলারিকে খুবই কট্টরপন্থী বলে বর্ণনা করে স্যান্ডারস বলেন, হিলারি মধ্যপ্রাচ্যে স্পষ্টতই আগ্রাসী কৌশল সমর্থন করছেন। হিলারি স্যান্ডারসের কর্মজীবনের প্রথম দিকে কঠোরত আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইন গ্রহণ না করায় তাকে দোষারোপ করেন। উভয় প্রার্থীই বিতর্কে আসা তাদের সাম্প্রতিক বিরোধের অবসান ঘটাতে আগ্রহী বলে মনে হয়। স্যান্ডারসের কর্মীরা হিলারির প্রচার শিবিরের সংগ্রহ করার ভোটার তথ্য অনুচিতভাবে দেখার দায়ে স্যান্ডারস ক্ষমা প্রার্থনা করেন। হিলারি সঙ্গে সঙ্গেই এতে সম্মতি দেন। মার্টিন ও ম্যালি দুই অগ্রগামী প্রার্থীকেই আক্রমণ করেন। তিনি নিজেকে নতুন প্রজন্মের এক প্রার্থী বলে দাবি করে বলেন, প্রতিদ্বন্দ্বীদের তুলনায় তার আরও উদারপন্থী হওয়ার রেকর্ড রয়েছে। কিন্তু বিতর্কে হিলারি ও স্যান্ডারসই প্রাধান্য বিস্তার করেন। বিতর্কের শেষ দিকে হিলারি পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকার সময় ওবামা প্রশাসন যেভাবে লিবিয়ার ঘটনাগুলোর মোকাবেলা করেছিলেন তা নিয়ে হিলারির ওপর চাপ দেয়া হয়। হিলারি বলেন, লিবিয়ার প্রসঙ্গ আমি বাদ দিচ্ছি না। কারও সেটি বাদ দেয়া উচিত, সেটিও আমি মনে করি না। কো-মডারেটর মার্থা র‌্যাডাটজ হিলারিকে প্রশ্ন করেন, কি ভুল করা হয়েছিল?

জবাবে হিলারি বলেন, কি ভুল করা হয়েছিল, তা বলা সব সময়েই পশ্চাদমুখিনতার পরিচায়ক হবে। স্যান্ডারস লিবিয়াকে শোচনীয়ভাবেই জটিল এক ইস্যু হিসাবে বর্ণনা করেন। আগের বিতর্কের মতো এবারও স্যান্ডারস বলেন, হিলারি সরকার পরিবর্তনে খুবই ব্যতিব্যস্ত হয়ে পড়েছেন এবং খুবই আগ্রাসী মনোভাব গ্রহণ করেছেন।