২২ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৬ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

মোহনগঞ্জে মেয়র প্রার্থীর গণসংযোগ


নিজস্ব সংবাদদাতা, মোহনগঞ্জ, নেত্রকোনা, ১৯ ডিসেম্বর ॥ মোহনগঞ্জ পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়রপ্রার্থী সাবেক উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক পৌর চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট লতিফুর রহমান রতন শনিবার পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডে গণসংযোগ করেছেন। লতিফুর রহমান রতন সমর্থকদের সঙ্গে নিয়ে পৌর এলাকার দৌলতপুর, হাসপাতাল এলাকা, টেংগাপাড়া, মাইলোড়া, দেওথান, নওহাল, কাজিয়াটি, বার্ত্তারগাতী, মার্কাস রোড, রাউৎপাড়া, থানা রোড, দক্ষিণ দৌলতপুর, গরুহাট্টা ও কলেজ রোড এলাকায় গণসংযোগ করেন। এ সময় তিনি আগামী ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনে সবাইকে নৌকা প্রতীকে ভোট দানের আহ্বান জানান। গণসংযোগ কালে উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ওয়াজ উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক শহীদ ইকবাল, যুগ্ম সম্পাদক কাজল সরকার, আইনবিষয়ক সম্পাদক এ্যাডভোকেট আব্দুল হান্নান রতন, আওয়ামী লীগ নেতা নুরুল আমিন, সৈয়দ কামরুজ্জামান জুয়েল, আবু জাহেদ, যুবলীগ নেতা ডাঃ জিটু ওসমান ভুঁইয়া প্রমুখসহ অন্য দলীয় নেতাকর্মীরা সঙ্গে ছিলেন।

কালকিনিতে প্রার্থীকে প্রচারে বাধা

নিজস্ব সংবাদদাতা, কালকিনি, মাদারীপুর, ১৯ ডিসেম্বর ॥ কালকিনি পৌরসভা নির্বাচনে ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী মোঃ হারুন মৃধার কর্মীদের প্রচার চালাতে বাধাপ্রদান এবং মাইকে প্রচার চালালে রিক্সা, মাইক ও প্রচারককে জীবননাশের হুমকি দিয়েছে প্রতিপক্ষ কাউন্সিলর প্রার্থী আছমত বেপারীর সমর্থকরা। এ বিষয়ে শনিবার সকালে উপজেলা রিটার্নিং অফিসার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন কাউন্সিলর প্রার্থী মোঃ হারুন মৃধা। ১৪ ডিসেম্বর থেকে নির্বাচনে মাইক ব্যবহারের সুযোগে প্রত্যেক প্রার্থী প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু ১৮ ডিসেম্বর হারুন মৃধার উটপাখি প্রতীকের প্রচার চালালে তাতে বাধা সৃষ্টি করা হয়।

এ বিষয়ে কাউন্সিলর প্রার্থী হারুন মৃধা বলেন, আমার বাড়ির সামনে আমার প্রতিপক্ষ আছমতের সমর্থকরা প্রতিনিয়ত ওত পেতে থাকে এবং দেশী অস্ত্রের ভয়ভীতি দেখায়। গণসংযোগ করতে গেলে আমার কর্মী-সমর্থকদের মারধর করা হচ্ছে।

বড়লেখায় ব্যতিক্রমী প্রচার

নিজস্ব সংবাদদাতা, মৌলভীবাজার, ১৯ ডিসেম্বর ॥ বড়লেখায় ভোটারের সমর্থন আদায়ে জাতীয় পার্টির মেয়র প্রার্থী মীর মোহাম্মদ মুজিবুর রহমান এখন শহর পরিচ্ছন্নকর্মীর ভূমিকায়। তিনি তার কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে প্রতিদিন ঝাড়ু, কোদাল, বেলচা ও টুকরি হাতে শহর পরিষ্কারের মাধ্যমে লাঙ্গল প্রতীকের পক্ষে প্রচার চালাচ্ছেন। এই ব্যতিক্রমী প্রচারের মাধ্যমে তিনি ভোটারের মন আকৃষ্ট করার চেষ্টা করছেন এবং পৌরবাসীও বেশ উপভোগ করছেন এ ব্যতিক্রর্মী প্রচার। মুজিবুর রহমান জানান, তিনি নির্বাচিত হয়ে প্রথমেই ময়লা-আবর্জনায় ও দুর্গন্ধে ভারা পৌরবাসীকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন, দুর্গন্ধ ও যানজটমুক্ত শহর উপহার দেয়া।