মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৯ আশ্বিন ১৪২৪, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

সোনারগাঁয়ে ভোটারের মন জয়ে মরিয়া প্রার্থীরা

প্রকাশিত : ২০ ডিসেম্বর ২০১৫

সংবাদদাতা, সোনারগাঁ, নারায়ণগঞ্জ, ১৯ ডিসেম্বর ॥ সোনারগাঁ পৌরসভা নির্বাচনে দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংর্ঘষের ঘটনায় আতঙ্ক বিরাজ করছে। এ ঘটনায় পৌর এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগের ফজলে রাব্বী ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী সাদেকুর রহমানের সমর্থকদের মধ্যে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। জানা যায়, সোনারগাঁ পৌরসভা নির্বাচনে চার মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থী প্রচারে ব্যস্ত। ভোটারদের মন জয় করে মেয়র বা কাউন্সিলর আসনটি দখল করে নিতে মরিয়া হয়ে পড়েছেন প্রার্থীরা। নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে কিছু প্রার্থী ব্যস্ত প্রচারে। আচরণবিধি মেনে ভোটারদের কাছে ভোট চাওয়া, মিছিল, গণসংযোগ, সভা করা সব প্রার্থীর অধিকার রয়েছে। এ ঘটনায় নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘিত হয়েছে বলে মনে করছেন অনেকই। রাস্তাঘাট, দোকানপাট, পাড়া-মহল্লা ও অলিগলিতে শুধু নির্বাচনী আলাপ। সোনারগাঁ পৌরসভা নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার তারিফুজ্জামান জানান, নির্বাচনী আচরণবিধি যে প্রার্থী লঙ্ঘন করবে তার বিরুদ্ধে দ্রুত আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে। সে যে দলেরই প্রার্থী হোক, আচরণবিধি মেনে প্রচার চালাতে হবে।

নোয়াখালীতে কাউন্সিলর প্রার্থীর জরিমানা

নিজস্ব সংবাদদাতা, নোয়াখালী, ১৯ ডিসেম্বর ॥ চাটখিল পৌরসভা নির্বাচনে আচারণবিধি লঙ্ঘনের অপরাধে এএইচএম ফারুক নামের এক কাউন্সিলর প্রার্থীকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। শুক্রবার রাতে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাচনে দায়িত্বরত ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবিএম বদরুদ্দোজা এ জরিমানা করেন। ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী এএইচএম ফারুকের লোকজন নির্বাচনী আচারণবিধি লঙ্ঘন করে রাত ৮টার পরও মাইকিংয়ের মাধ্যমে তাদের প্রচার চালান।

রাঙ্গামাটিতে প্রচারে এগিয়ে আ’লীগ ॥ বিষফোঁড়া তিন বিদ্রোহী

নিজস্ব সংবাদদাতা, রাঙ্গামাটি, ১৯ ডিসেম্বর ॥ আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে পাহাড়ী শহর রাঙ্গামাটিতে নির্বাচনী প্রচার জমে উঠেছে। মেঘলা দিনের গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি উপেক্ষা করে প্রার্থীরা পাহাড়ের চূড়া থেকে পাদদেশ পর্যন্ত চষে বেড়াচ্ছেন কাউন্সিলার ও মেয়র প্রার্থীগণ। এরপরও আওয়ামী লীগ ও বিএনপির বিষফোঁড়া হয়ে দাঁড়িয়েছে দলের তিন বিদ্রোহী প্রার্থী। তারা দল থেকে মনোনয়ন না পেয়ে দলের প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিষোদ্গার করে মাঠ চষে বেড়িয়ে সাধারণ ভোটারকে বিভ্রান্ত করছে। এ নিয়ে জেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন। পর্যটন শহর রাঙ্গামাটি পৌরসভায় এবার সাত মেয়র প্রার্থী ভোটযুদ্ধের বৈতরণী পার হওয়ার জন্য দলবল নিয়ে মাঠে নেমেছেন।

প্রকাশিত : ২০ ডিসেম্বর ২০১৫

২০/১২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

পৌর নির্বাচন-২০১৫



শীর্ষ সংবাদ: