২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বোরহানউদ্দিনে বিএনপি মেয়র প্রার্থীর বাসায় হামলা ভাংচুর ॥ আহত ২


নিজস্ব সংবাদদাতা, ভোলা, ১৮ ডিসেম্বর ॥ বোরহানউদ্দিন পৌর নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী মনিরুজ্জামান কবিরের বাসায় হামলা চালিয়ে ভাংচুর করা হয়েছে। এ সময় তার স্ত্রীসহ ২ জন আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে ২নং ওয়ার্ডের তার বাসায় এই হামলার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার জন্য বিএনপির প্রার্থী মনিরুজ্জামান শুক্রবার দুপুরে নিজ বাসায় প্রেস ব্রিফিংয়ে প্রতিপক্ষ সরকার দলের প্রার্থীর কর্মীদের দায়ী করলেও আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী মোঃ রফিকুল ইসলাম এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত নয় বলে জানান।

বিএনপির মেয়র প্রার্থী মনিরুজ্জামান লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করে বলেন, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টায় তিনি, তার স্ত্রী ও মেয়েসহ ঘরে অবস্থানকালে কয়েক সন্ত্রাসী প্রথমে দরজা খুলতে বলে। এ সময় নির্বাচন থেকে সরে যাওয়ার জন্য বলতে থাকে। দরজা বন্ধ থাকায় রামদা ও রড দিয়ে জানালার গ্লাস ও লাইট ভাংচুর করে। এ সময় তিনি বাঁচাও বাঁচাও বলে চিৎকার করতে থাকেন। পরে রাত সাড়ে ১২টায় পুলিশ আসে। তার আগেই সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। তিনি আরও জানান, এলাকার ফরিদ উদ্দিন, নুরু ও ফরিদ হোসেনের নেতৃত্বে এ হামলা হয় বলেও তিনি অভিযোগ করেন। হামলার সময় চোখে কাচের টুকরা পড়ে আহত হন কবিরের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা, মেয়ে কলেজ ছাত্রী নুসরাত জাহান ইলমি ও তিনি নিজে। এ ঘটনায় রাতেই তাৎক্ষণিক মৌখিকভাবে থানা পুলিশ ও নির্বাচন সংশ্লিষ্ট সকলকে জানানো হয়েছে। কিন্তু কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। অপরদিকে আওয়ামী লীগ দলীয় মেয়র প্রার্থী বর্তমান মেয়র রফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, বিএনপি দলীয় প্রার্থী আর তার বাসার দূরত্ব দেড়শ’ ফুট। তার বাসায় সন্ত্রসীরা হামলা করেছে যে সময় বলা হয় ওই সময়ও বাজার এলাকায় বহু লোক চলাচল করে। অথচ এমন ঘটনা কেউ শুনতে পাননি। রফিক অভিযোগ করেন, কবিরের পারিবারিক কোন ঘটনার জের ধরে পরিবারের পক্ষ থেকেই কেউ জানালা থাই গ্লাস ভাংচুর করেছে।