মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৫ আশ্বিন ১৪২৪, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

ঢাবি ছাত্রীর আত্মহত্যার চেষ্টা

প্রকাশিত : ১৮ ডিসেম্বর ২০১৫

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার ॥ প্রেমে প্রতারিত হয়ে শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্সি বিভাগের এক ছাত্রী। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করা হয়। বৃহস্পতিবার বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে এ ঘটনা ঘটে।

ওই ছাত্রী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ট্যুরিস্ট সোসাইটির সদস্য এবং সুফিয়া কামাল হলের আবাসিক ছাত্রী। ছাত্রীর সহপাঠীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যকলা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র জুম্মান সাদিক জ্যাভলিনের সঙ্গে তার সম্পর্ক ছিল। সম্প্রতি সম্পর্কে টানাপোড়েন তৈরি হওয়ায় মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়ে ওই ছাত্রী। তারই প্রেক্ষিতে আত্মহত্যার চেষ্টা করে সে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের ছাত্র মাহবুব খান সাংবাদিকদের জানান, বিকেল পৌনে চারটার দিকে টিএসসির তিনতলা থেকে নামার সময় দ্বিতীয় তলার একটি টয়লেট থেকে তিনি চিৎকার শুনতে পান। কাছে গিয়ে ভেতর থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখে এবং একটি মেয়েকে ‘হেল্প-হেল্প’ বলে চিৎকার করতে শোনেন তিনি। পরে সে এবং তার এক বন্ধু টয়লেটের দরজা ভেঙ্গে মেয়েটির শরীরে আগুন জ্বলেেত দেখেন। এ সময় পানি দিয়ে শরীরের আগুন নিভিয়ে উপস্থিত লোকজনের সহযোগিতায় তাকে দ্রুত ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে যান।

ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের ইনচার্জ ডাঃ ফয়সালুজ্জামান সাংবাদিক বলেন, আগুনে মেয়েটির শরীরের ২৮ ভাগ পুড়ে গেছে। তার বুক এবং পেটের অনেকাংশ পুড়েছে। তার অবস্থা শঙ্কামুক্ত নয়। এদিকে খবর পেয়ে ঔই ছাত্রীকে দেখতে ঢামেক হাসপাতালে যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। এসময় তিনি মেয়েটির চিকিৎসার খোঁজ-খবর নেন। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন ঢাবির ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর অধ্যাপক এ এম আমজাদ আলী, টিএসসির পরিচালক আলমগীর হোসেন।

এদিকে মেয়েটির আত্মহত্যা চেষ্টার খবর শুনে জ্যাভলিনও অসুস্থ হয়ে পড়েছে বলে জানিয়েছে তার সহপাঠীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যকলা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র সানোয়ারুল হক সনি জানান, অসুস্থ অবস্থায় তারা তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেছেন।

অধ্যাপক এ এম আমজাদ আলী সাংবাদিকদের বলেন, প্রেমঘটিত কারণে মেয়েটি আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে বলে জানতে পেরেছি। আমরা তার সুচিকিৎসার জন্য সব ধরনের পদক্ষেপ নিচ্ছি। ঘটনার বিষয়ে বিস্তারিত জেনে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে তিনি।

প্রকাশিত : ১৮ ডিসেম্বর ২০১৫

১৮/১২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

অন্য খবর



শীর্ষ সংবাদ: