১৩ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৫ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

পুঁজিবাজারে ৩শ’ কোটি টাকার নিচে লেনদেন


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ আবারও দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ৩০০ কোটি টাকার নিচে লেনদেন হয়েছে। সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার দিনশেষে লেনদেন হয়েছে ২৮৬ কোটি ৫৯ লাখ টাকা। এর আগে সর্বশেষ লেনদেন দিবস মঙ্গলবার লেনদেন হয়েছিল ৩২৪ কোটি ৬৭ লাখ টাকা। এ হিসেবে মঙ্গলবারের আগের দিনের তুলনায় লেনদেন কমেছে ৩৮ কোটি ৮ লাখ টাকা। লেনদেন কমার এ হার ১১.৭৩ শতাংশ।

এর আগে চলতি সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসেও ৩০০ কোটি টাকার কম লেনদেন হয়েছিল। ওইদিন লেনদেন হয়েছিল ২৭৪ কোটি ১৬ লাখ টাকা।

বাজার বিশ্লেষকদের মতে, মঙ্গলবারে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত দুটি ফান্ড এইমস ও গ্রামীণ’১-এর অবসায়নের সিদ্ধান্ত উচ্চ আদালত অবৈধ ঘোষণা করে। মূলত ফান্ড দুটির অবসায়নে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এ্যান্ড একচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) নির্দেশনাকে অবৈধ ঘোষণার কারণে বৃহস্পতিবারে সকাল থেকেই শেয়ার বিক্রির চাপ কিছুটা কম ছিল। যার কারণে সূচকে ইতিবাচক প্রবণতা ফিরে আসে। তবে শেয়ার কেনা-বেচা না করে হাতে ধরে রাখার প্রবণতার সংখ্যাই বেশি। যার কারণে সার্বিকভাবে দিনটিতে লেনদেন আগের দিনের তুলনায় কমেছে।

এদিকে দেশের অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেন কিছুটা বেড়েছে। মঙ্গলবার ২১ কোটি ৪৭ লাখ টাকা লেনদেন হলেও বৃহস্পতিবার তা বেড়ে হয়েছে ২১ কোটি ৫৩ লাখ টাকা। অপরদিকে টানা ৭ দিন দরপতনের পর মূল্য সূচকের সামান্য উত্থানে শেষ হয়েছে ডিএসইর লেনদেন। তবে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে পতন অব্যাহত রয়েছে।

সকালে ইতিবাচক প্রবণতা দিয়ে শুরুর পরে সারাদিনই সূচকে উর্ধগতি ছিল। শেষেও এই প্রবণতা ছিল। পুরোদিন শেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স বেড়েছে ৬.৯০ পয়েন্ট। দিনশেষে সূচক দাঁড়িয়েছে ৪৫২০.৮৭ পয়েন্টে। মঙ্গলবার সূচক কমেছিল ১৯.৯৩ পয়েন্ট। দিনটিতে লেনদেনে অংশ নেয়া ৩১৯টি ইস্যুর মধ্যে দিনশেষে দর বেড়েছে ১৪০টির, কমেছে ১৩১টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৮টির দর।

ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে রয়েছে বেক্সিমকো ফার্মা। দিনশেষে কোম্পানিটির ১৯ কোটি ২৬ লাখ ৯৬ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা কাশেম ড্রাইসেলের লেনদেন হয়েছে ১৫ কোটি ৭৮ লাখ ৯৭ হাজার টাকা। ১১ কোটি ২৯ লাখ ৬১ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে স্কয়ার ফার্মা। লেনদেনে এরপর রয়েছে যথাক্রমেÑ লাফার্জ সুরমা, রিজেন্ট টেক্সটাইল, সাইফ পাওয়ারটেক, বিএসআরএম স্টিল, আফতাব অটোমোবাইলস, কেডিএস এক্সেসরিজ, ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্স।

ডিএসইর দরবৃদ্ধির সেরা কোম্পানিগুলো হলো : এ্যাপেক্স স্পিনিং, লিব্রা ইনফিউশন, ৫ম আইসিবি, এ্যাপেক্স ফুডস, বিডি ল্যাম্পস, আরামিট, এ্যাপেক্স ট্যানারি, কাসেম ড্রাইসেল ও প্রিমিয়ার সিমেন্ট। দেশের অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সিএসসিএক্স ৫.৯৩ পয়েন্ট কমে দিনশেষে ৮৪০০.৭১ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। লেনদেন হয়েছে ২১ কোটি ৫৪ লাখ টাকা। লেনদেনে অংশ নেয়া কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৮৮টির, কমেছে ১১৩টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৮টির দর।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : রিজেন্ট টেক্সটাইল, এমারেল্ড ওয়েল, ফার কেমিক্যাল, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, কাসেম ড্রাইসেল, ইফাদ অটোস, ইউনাইটেড এয়ার, ইউনাইটেড পাওয়ার, কেডিএস এক্সেসরিজ ও বেক্সিমকো ফার্মা।