২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৬ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

ঢাকা কলেজ ছাত্রদের সঙ্গে দোকানিদের দফায় দফায় সংঘর্ষ


স্টাফ রিপোর্টার ॥ তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাজধানীর ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে মার্কেটের দোকানিদের দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়েছে। এই সংঘর্ষে ঢাকা কলেজের দুই শিক্ষার্থীসহ পাঁচজন আহত হয়েছেন। টানা দেড় ঘণ্টা উভয়ের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইটপাটকেল নিক্ষেপে পুরো মিরপুর সড়ক, গাউছিয়া মার্কেটসহ কয়েকটি মার্কেট এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। এ সময় রাজধানীর ধানম-ি হকার্স মার্কেট, গাউছিয়া মার্কেটসহ প্রায় ২০টি মার্কেটের দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়। নগরীর গুরুত্বপূর্ণ মিরপুর রোডসহ আশপাশের কয়েকটি সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। দেখা দেয় ভয়াবহ যানজট। পরে পুলিশ কয়েক রাউন্ড টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিকেল ৪টার দিকে মিরপুর রোডের নূরজাহান মার্কেটে কাপড় কেনাকে কেন্দ্র করে ঢাকা কলেজের ছাত্রদের সঙ্গে স্থানীয় দোকানির সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। এক পর্যায়ে ঢাকা কলেজ থেকে ছাত্ররা বেরিয়ে এসে নূরজাহান মার্কেটের ওপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেন। এক পর্যায়ে ঢাকা কলেজ ছাত্রদের সঙ্গে দোকানিদের সংঘর্ষ বেঁধে যায়। সংঘর্ষে ২ ছাত্রসহ ৫ জন আহত হন। পরে তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে জরুরী বিভাগে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা হচ্ছেন, ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী শান্ত (২১), ইমরান (২৪), পথচারী নুরুল ইসলাম (৪৮), ক্রেতা হামিদা আক্তার (৪০) ও দোকানদার রনি (২৪)। সূত্রগুলো জানায়, বিকেল সোয়া ৪টার দিকে ঢাকা কলেজের ছাত্রের সঙ্গে দোকানিদের মধ্যে দফায় দফায় ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। এ সময় মিরপুর সড়ক ও মার্কেট সংলগ্ন রাস্তাগুলোয় ইটের স্তূপ পড়ে যায়। সংঘর্ষ চলাকালে রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ মিরপুর সড়কটি বন্ধ হয়ে যায়। এ সময় ধানম-ি হকার্স, গাউছিয়া মার্কেট, হোসেনিয়া মার্কেট নূর ম্যানসন, নূরজাহান মার্কেট, চাঁদনি চক, নিউ সুপার মার্কেট (দঃ) চন্দ্রিমা উদ্যানসহ প্রায় ২০টি মার্কেটের দোকান পাট বন্ধ হয়ে যায়। এছাড়া অনেক মার্কেটের প্রবেশ গেটগুলো বন্ধ করে দেয়া হয়। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে নিউ মার্কেট ওভার ব্রিজের নিচে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা আগুন লাগিয়ে দেয়। আশপাশে অবস্থান করা মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। রাস্তায় যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অফিস ফেরত মানুষ চরম বিপাকে পড়েন। অনেককে হেঁটে বাসা বাড়িতে যেতে দেখা যায়। পুলিশ পরিদর্শক (পেট্রোল) সাজ্জাদ হোসেন জানান, বিকেল চারটার দিকে নুরজাহান মার্কেটের দোকানিদের সঙ্গে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু হলে রাস্তার যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এ সময় মিরপুর সড়ক ও এর আশপাশে মার্কেট সংলগ্ন সড়কের মধ্যে থেকে দুই পক্ষের মধ্যে ইট নিক্ষেপ করতে থাকে। তবে কী নিয়ে এই সংঘর্ষের সূত্রপাত, তা জানাতে পারেননি এই পুলিশ কর্মকর্তা। বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া চলছিল। ঢাকা মহনগর পুলিশের রমনা জোনের এডিসি মোঃ জসীম উদ্দিন জানান, প্রায় দেড় ঘণ্টা ধরে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ। সংঘর্ষ চলাকালে রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। সাড়ে ৫টার দিকে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়ে আসে। এ ঘটনায় কাউকে আটক করা হয়নি। দোষীদের শনাক্ত করে যথাযথ আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: