২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৮ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

যমুনার চরে ধরা পড়ল বিরল প্রজাতির অজগর


সমুদ্র হক, বগুড়া অফিস ॥ বিরল প্রজাতির বড় একটি অজগর যমুনার চর থেকে লোকালয়ে ঢুকে পড়লে কয়েক কিশোর সাপটি বন্দী করতে সমর্থ হয়। পরে মুরব্বিদের খবর দিলে তারা প্রশাসনে খবর দেন। পরে সাপটিকে কোন পার্ক অথবা চিড়িয়াখানায় অবমুক্ত করার জন্য ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

বিবিসিএফের সভাপতি ও ওয়াইল্ডলাইফ এ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট সেভ টিমের (ওয়েস্ট) নির্বাহী পরিচালক এসএম ইকবাল জানান, অজগরটির ইংরেজী নাম রক পাইথন। বৈজ্ঞানিক নাম পাইথন মলুরাস। প্রায় ১২ ফুট লম্বা ও ১২ কেজি ওজনের এই অজগরটি উদ্ধার করা হয় বগুড়ার সারিয়াকান্দির যমুনা তীরের দেবডাঙ্গা গ্রোয়েন বাঁধ এলাকা থেকে। স্থানীয়রা জানান, কয়েক দিন ধরেই শুকনো প্রায় যমুনা নদীর তীরে বড় একটি সাপের আনাগোনা লক্ষ্য করা যায়। প্রথমে মনে করা হয়েছিল এটি বোধহয় কোন সাধারণ সাপ। তাছাড়া পানির মধ্যে কোন বস্তু ও জলজ প্রাণীকে একটু ছোটই দেখা যায়।

মঙ্গলবার বিকেলের দিকে সাপটি যমুনার চর এলাকায় লুকিয়ে থাকতে দেখা যায়। পরে সাপটি ধীরগতিতে লোকালয়ে ঢুকে পড়লে কয়েক কিশোর তরুণ সাপটির পিছু নিয়ে তাড়া করে। শেষপর্যন্ত অজগর সাপটিকে ধরা হয়।

এসএম ইকবাল জানান, অজগরের অনেক জাত আছে। কোন অজগরের বিষ নেই এবং দংশনে কেউ মারা যায় না। জীববৈচিত্র্যের জন্য অজগর অনেক উপকারী। বায়োডাইভার্সিটি (জীববৈচিত্র্য) রক্ষায় অজগরকে না মেরে সংরক্ষণ করা দরকার। এক্ষেত্রে বগুড়ার সারিয়াকান্দির একদল কিশোর তরুণ অজগরকে বাঁচিয়ে পরিবেশ রক্ষা করে বন্যপ্রাণী সংরক্ষকদের কাছে তুলে দিয়ে বড় কাজ করেছে।