মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
১৯ আগস্ট ২০১৭, ৪ ভাদ্র ১৪২৪, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

চেলসিকে হারিয়ে ফের শীর্ষে লিচেস্টার সিটি

প্রকাশিত : ১৬ ডিসেম্বর ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ একের পর এক অসাধ্য সাধন করে চলেছে লিচেস্টার সিটি। ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের মাঝারি শক্তির এই দলটি এবার হারিয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন চেলসিকে। সোমবার রাতে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ক্লাউডিও রানিয়েরির দল ২-১ গোলে হারায় জোশে মরিনহোর শিষ্যদের। এই দিয়ে টানা তিন ম্যাচে জয়শূন্য থাকল দ্য ব্লুজরা। এর মধ্যে হার দুটিতেই। যে কারণে স্টামফোর্ড ব্রিজের ক্লাবটি এখন রেলিগেশনের শঙ্কায়।

নিজেদের মাঠ কিং পাওয়ার স্টেডিয়ামে ম্যাচের ৩৩ মিনিটে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা জেমি ভার্ডির গোলে এগিয়ে যায় লিচেস্টার সিটি। ডানপ্রান্ত থেকে মিডফিল্ডার রিয়াদ মাহরেজের বাড়ানো বলে দুই ডিফেন্ডারের ফাঁক গলে হাফ ভলিতে লক্ষ্যভেদ করেন ভার্ডি। এবারের ইপিএলে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ গোলদাতা ইংলিশ ফরোয়ার্ড ভার্ডির এটা ১৫ নম্বর গোল। টানা ১৪ ম্যাচে গোল করে অবিশ্বাস্য ধারাবাহিকতা প্রদর্শন করে চলেছেন তিনি। বিরতির পর ৪৮ মিনিটে মাহরেজ নিজেই ব্যবধান দ্বিগুণ করেন। বাঁদিক থেকে ইংলিশ মিডফিল্ডার মার্ক এ্যালব্রাইটনের দারুণ ক্রস ধরে ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে কোনাকুনি শটে বল জালে জড়ান আলজিরিয়ার এই মিডফিল্ডার। ম্যাচসেরা মাহরেজের এটা এবারের ইপিএলে ১১ নম্বর গোল। ম্যাচের ৭৭ মিনিটে জোরালো হেডে ফরাসী স্ট্রাইকার লোইক রেমি চেলসির পক্ষে ব্যবধান কমিয়ে লড়াইয়ের আভাস দেন। তবে শেষ পর্যন্ত লিচেস্টারের জয়ের পথে বাধা হতে পারেনি চেলসি। এই হারের পর চেলসি কোচ জোশে মরিনহো যেন নির্বাক হয়ে গেছেন। এমন ভয়ঙ্কর মৌসুম সম্ভবত স্পেশাল ওয়ানের ফুটবল ক্যারিয়ারে আর আসেনি। তিনি ক্লাব ফুটবল ইতিহাসের অন্যতম সেরা কোচ। অসংখ্য সাফল্যে সমৃদ্ধ তার কোচিং ক্যারিয়ার। গত মৌসুমে তার অধীনে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের শিরোপা উৎসবে মেতে উঠেছিল চেলসি। অথচ এবার তার দলের কী দুরাবস্থা! চেলসির ব্যর্থতার পাশাপাশি লিচেস্টার সিটির সাফল্যও এবারের লীগের অন্যতম আলোচিত বিষয়। কম বাজেটে, মাঝারি মানের দলই সব সময় গড়ে থাকে তারা। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। তবে এই দল নিয়েই ১৬ পর্ব শেষে তারা এখন লীগের শীর্ষে। ৩৫ পয়েন্ট সংগ্রহ করা লিচেস্টারের চেয়ে দুই পয়েন্ট কম নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আর্সেনাল। ৩২ আর ২৯ পয়েন্ট নিয়ে যথাক্রমে তৃতীয় ও চতুর্থ স্থানে ম্যানচেস্টার সিটি ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। লীগে নবম পরাজয়ের লজ্জায় পড়া চেলসি ১৫ পয়েন্ট নিয়ে পড়ে আছে ১৬ নম্বর স্থানে।

প্রিমিয়ার লীগের সেরা তিন দল সরাসরি উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগে খেলার সুযোগ পায়। চতুর্থ দলটি খেলে বাছাইপর্বে। তবে চতুর্থ হওয়ার কোন আশাই দেখছেন না মরিনহো। ম্যাচ শেষের সাক্ষাতকারে নিরাশাই ধ্বনিত হয়েছে স্বঘোষিত ‘স্পেশাল ওয়ান’নের কণ্ঠে। তিনি বলেন, সেরা চারে থাকার আশা যে শেষ হয়ে গেছে তা পরিষ্কার। আমরা সেরা চারের মধ্যে থাকতে পারব না। তবে আমরা সেরা ছয়ের মধ্যে থাকতে পারব। কারণ অনেক দলই পয়েন্ট নষ্ট করছে। যদিও এই মুহূর্তে দলের অবস্থানের জন্য আমি লজ্জিত। ২০ দলের প্রিমিয়ার লীগের শেষ তিন দলকে অবনমিত হয়ে পরের মৌসুমে চ্যাম্পিয়নশিপ লীগে খেলতে হয়। বর্তমানে চেলসি অবনমন অঞ্চলের খুব কাছেই আছে। মরিনহো অবশ্য এখনই উদ্বিগ্ন হওয়ার মতো কিছু দেখছেন না। এ প্রসঙ্গে তার ভাষ্য, আমি মনে করি না আমরা অবনমন লড়াইয়ের মধ্যে আছি। পয়েন্ট টেবিলের দিকে তাকালে অবশ্য সেটাই মনে হবে। তবে গত তিন-চার মাস ধরেই তো সবাই মনে করছে যে আমরা এই লড়াই করছি। যদিও আমি তা মনে করি না।

বর্তমানে চেলসি পয়েন্ট তালিকায় অবস্থান অবনমন অঞ্চল থেকে মাত্র দুই ধাপ ওপরে। পয়েন্টের হিসেবে ১৭ ও ১৮ নম্বরে থাকা সোয়ানসি ও নরউইচ সিটির চেয়ে মাত্র ১ পয়েন্ট এগিয়ে। সম্প্রতি একটা গুঞ্জন আছে, চ্যাম্পিয়ন্স লীগে পোর্তোর বিপক্ষে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচ আর প্রিমিয়ার লীগে লিচেস্টারের সঙ্গে ম্যাচই ঠিক করে দেবে মরিনহোর ভবিষ্যত। প্রথমটি জিতেছে চেলসি, এবার হার। মরিনহোর ভাগ্যে কী অপেক্ষা করছে সেটা এখন কৌতূহলী প্রশ্ন। পরশু রাতে চেলসি হেরেছে মূলত ‘রিয়াদ মাহরেজ-জেমি ভার্ডি’ জুটির কাছে। চলমান মৌসুমে ইপিএলে সবচেয়ে ভয়ঙ্কর জুটির তকমা ইতোমধ্যে পেয়েছে তারা।

চলতি মৌসুমে ৩৪ গোল করেছে লিচেস্টার। এর মধ্যে ২৬ গোল এসেছে এ দুজনের পা থেকে (ভার্ডি ১৫, মাহরেজ ১১)। এই দুজনের গোলে ভর করেই ইউরোপের সেরা পাঁচে জায়গা করে নিয়েছে লিচেস্টার। ইউরোপের শীর্ষ পাঁচ লীগ মিলিয়ে গোল করার রেকর্ডে বরুসিয়া ডর্টমুন্ড (৪৬), বেয়ার্ন মিউনিখ (৪৫), পিএসজি (৪৫) ও বার্সিলোনার (৩৬) পরই আছে চমক দেখানো লিচেস্টার।

প্রকাশিত : ১৬ ডিসেম্বর ২০১৫

১৬/১২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: