মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১১ আশ্বিন ১৪২৪, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

বছরের শেষটা স্মরণীয় চান মেসি-নেইমার

প্রকাশিত : ১৬ ডিসেম্বর ২০১৫
বছরের শেষটা স্মরণীয় চান মেসি-নেইমার

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ হঠাৎই ছন্দপতন হয়েছে বার্সিলোনার। স্প্যানিশ লা লিগা ও উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ মিলিয়ে টানা তিন ম্যাচ ড্র করেছে কাতালানরা। এই মলিন অবস্থা নিয়েই বর্তমানে এশিয়ার দেশ জাপান অবস্থান করছে স্প্যানিশ পরাশক্তিরা। লক্ষ্য একটাই, ইতিহাসের প্রথম ও একমাত্র দল হিসেবে তৃতীয়বার ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপা জয় করা।

গত মৌসুমে ঐতিহাসিক ট্রেবল জয় করা বার্সা এবারের ক্লাব বিশ্বকাপে সরাসরি সেমিফাইনালে খেলবে। বৃহস্পতিবার আসরের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে লুইস এনরিকের দলের প্রতিপক্ষ ব্রাজিলকে বিশ্বকাপ জেতানো কোচ লুইস ফিলিপ সোলারির দল চীনের গুয়াংজু এভারগ্রান্ডে। ইতোমধ্যে জাপান পৌঁছেছে বার্সিলোনা ফুটবল দল। সেখানে দলটির সব ফুটবলারই সম্প্রতি হতাশা কাটিয়ে শিরোপা জয়ের প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন। দলের সেরা দুই সুপারস্টার লিওনেল মেসি ও নেইমারও শিরোপা জিতে বছরটা স্মরণীয় করার ইচ্ছার কথা শুনিয়েছেন।

২০০৯ সালে পেপ গার্ডিওলার অধীনে রেকর্ড এক বছরে ছয় শিরোপা জিতেছিল বার্সিলোনা। এবার সেই রেকর্ড ছোঁয়ার সুযোগ নেই বার্সার। কেননা স্প্যানিশ সুপার কাপ জেতা হয়নি তাদের। যে কারণে ক্লাব বিশ্বকাপ জিতলেও এটি হবে ২০১৫ সালে বার্সিলোনার পাঁচ নম্বার ট্রফি। এরপরও অবশ্য মেসি মনে করেন গার্ডিওলার ২০০৯ সালের দলের চেয়ে এই বার্সাই সেরা। এই দলে আরও ভাল খেলোয়াড় আছে বলে মনে করেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। ২০০৯ সালের সাফল্যের প্রসঙ্গ তুলে ধরে মেসি সাক্ষাতকারে বলেন, ওই সময় আমরা সব শিরোপা জিতেছিলাম। মনে হচ্ছিল না, সে সব ফের করা সম্ভব। আমরা নিশ্চিত ছিলাম না যে, এর কাছাকাছিও আবার যেতে পারব। তবে এই তো আমরা এখানে। এখন শুধু আমাদের বছরটাকে সম্ভাব্য সবচেয়ে ভালভাবে শেষ করতে হবে এবং এটাকে অবিস্মরণীয় করতে হবে। তিনি আরও বলেন, আমরা যে অবস্থানে আছি তাতে সুযোগ আছে একটা ট্রফি জিতে বছরটা শেষ করার। আমাদের ক্লাবের ইতিহাসে এই ট্রফিগুলো ভিন্ন মাত্রা যোগ করেছে। যেটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

বার্সা সেমিফাইনাল জিতলে এবং আর্জেন্টিনার দল রিভারপ্লেট অপর সেমিতে জয় পেলে ফাইনালে মুখোমুখি হবে দল দুটি। এক্ষেত্রে নিজ দেশের ক্লাবের বিপক্ষে সম্ভাব্য শিরোপা লড়াইয়ের আগে সতর্ক সাবেক ফিফা সেরা ফুটবলার। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমি মনে করি, রিভারের খুব ভাল কিছু খেলোয়াড় আছে যারা মাঠে নেমে জয়ের জন্য খেলতে পছন্দ করে। আমি জানি না, তারা এমনটা করবে কি না। কিন্তু আমার মতে, তারা খুব ভাল খেলে। রিভার প্লেটের কোচ মার্সেলো গালার্ডোকে নিয়েও সতর্ক মেসি। বলেন, গালার্ডো খুবই বুদ্ধিমান। নিশ্চয়ই তিনি জানেন, কিভাবে খেলতে হয় এবং কিছু প্রস্তুতিও নিশ্চয় নিয়ে রেখেছেন। চোট কাটিয়ে ক্লাব বিশ্বকাপ দিয়েই ফিরতে চান নেইমার। ব্রাজিলিয়ান অধিনায়ক জানিয়েছেন, তারা শিরোপা জিতে বছর শেষ করতে সম্ভাব্য সেরাটাই খেলবেন।

মেসি-নেইমার-সুয়ারেজদের এত কাছ থেকে দেখার সুযোগ হাতছাড়া করছেন না জাপানের ফুটবল ভক্তরা। নারিতা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বার্সিলোনা তারকাদের উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান তারা। প্রায় তিন শ’ ফুটবলপ্রেমীর হর্ষধ্বনিতে মুখর হয়ে উঠেছিল বিমানবন্দর প্রাঙ্গণ। ফুটবলের ভরা মৌসুমের মাঝখানে বার্সিলোনা জাপান সফরে এসেছে ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপ মিশনে। মহাদেশীয় ক্লাব চ্যাম্পিয়নদের এই আসরের আয়োজক সূর্যোদয়ের দেশ।

বিমানবন্দরে অবতরণের সময় বার্সার খেলোয়াড়দের পরনে ছিল দলের নীল ট্র্যাকস্যুট। মেসি বেশ হাসিখুশি মেজাজে ছিলেন। ভক্তদের উদ্দেশে কয়েকবার হাতও নাড়িয়েছেন সাবেক টানা চারবারের ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলার। নেইমার অবশ্য এতটা ‘সদয়’ হননি ভক্তদের প্রতি। মাথায় বেসবল ক্যাপ, চোখে কালো সানগ্লাস আর কানে ইয়ারফোন গুঁজে বেশ গম্ভীর হয়েই বিমানবন্দর ছাড়েন ব্রাজিলিয়ান তারকা। কুঁচকির চোটের কারণে হয়ত মনটা ভার তার!

প্রকাশিত : ১৬ ডিসেম্বর ২০১৫

১৬/১২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: